,
সংবাদ শিরোনাম :

হায়রে মানুষ!

এফএনএস: বরগুনার আমতলীর উত্তর টিয়াখালী গ্রামে গত রোববার রাতে শক্রতার জের ধরে মতিয়ার রহমান শরীফের ৫টি গরু কুপিয়ে আহত করেছে দুর্বৃত্তরা। একটি গরু গুরুতর আহত হওয়ায় জবাই করে মাংস বিক্রি করা হয়। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে মতিয়ার রহমান শরীফের সাথে চাচাত ভাই শাহজাহান শরীফ ও ছোবহান শরীফের মধ্যে পৈত্রিক সম্পতি এবং খুরিয়ার খেয়াঘাটের যৌথ মালিকানার ১০টি দোকান নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে দ্ব›দ্ব চলে আসছে। এ নিয়ে বরগুনার দেওয়ানী আদালতে ৫ বছর পূর্বে মতিয়ার রহমান শরীফ একটি বন্টন মামলাও করেন। জমি এবং দোকান ঘড় নিয়ে কয়েক দফা শালিস বৈঠকও হয়। তাতে দ্ব›েদ্বর কোন সুরাহা হয়নি। জমি জমা নিয়ে গত রোববার দুপুরের সময় চাচাত ভাই শাহজাহান শরীফ, ছোবহান শরীফ, ভাগিজা মাহাবুব শরীফ ও শামীম শরিফের সাথে মতিয়ার রহমান শরীফের বাক বিতন্ডা হয়। তখন মতিয়ার রহমান শরীফকে তারা দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়। এ ঘটনার পর গত রোববার গভীর রাতে গোয়ালে বাঁধা ৫টি গুরু কুপিয়ে আহত করে দুবৃত্তরা। গতকাল সোমবার সকালে ফজরের নামজ পড়তে উঠে এ অবস্থা দেখতে পান মালিক মতিয়ার রহমান। গরুর মধ্যে ২টি গভী, ২টি বলদ ও ১টি বকনা বাছুর রয়েছে। এর মধ্যে ধারালো দায়ের কোপে প্রায় ৬০ হাজার টাকা মূল্যের ১টি গাভীর ঘারের রগ দিখন্ডিত এবং ভ‚ড়ি বের হয়ে যাওয়ায় মুমুর্ষ অবস্থায় সকালে জবাই করে মাংস বিক্রি করা হয়। গরুর মালিক মতিয়ার রহমান শরীফ অভিযোগ করে বলেন, তার চাচাত ভাই শাহজাহান শরীফ, ছোবাহান শরীফ ভাইর ছেলে শামীম শরীফ ও মাহাবুব শরীফ আমাকে হত্যার উদ্দেশে আসে। আমাকে না পেয়ে তারা গরু কুপিয়ে আহত করে। অভিযুক্ত শাজাহান শরীফের ছেলে মাহাবুব শরীফ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেন। ইউপি সদস্য হাসানুজ্জামান ইউনুছ মোল­া বলেন, শক্রতার জের ধরে পশুর সাথে এরকম হৃদয় বিদারক আচরণ ঠিক হয়নি। আমতলী সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: মোতাহার উদ্দিন মৃধা জানান, জমি জমা নিয়ে মিমাংশা প্রায় শেষে পথে। এ সময় এরক একটি ঘটনা দুঃখজনক। নিজেদের মধ্যে দ্ব›েদ্বর জের ধরে নিজেরা অথবা বাহির থেকে এঘটনা ঘটিয়ে কেউ ফায়দা নিতে পারে বলে আমার ধারনা। তবে তদন্ত সাপেক্ষে মিমাংশা করে দেওয়া হবে। আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: সহিদ উল্যাহ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আহত গরুগুলোর চিকিৎসার ব্যাবস্থা করি। এখনো কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পাওয়া গেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share
[related_post themes="flat" id="245849"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com