,
সংবাদ শিরোনাম :
» « মেক্সিকোতে ফূটবল দর্শকদের ওপর গুলিতে নিহত ১৪» « রেস্তোরাঁ থেকে বের করে দেওয়া হল হোয়াইট হাউসের মুখপাত্রকে» « স্কুল বন্ধ করতে জুনিয়রকে খুন সিনিয়র শিক্ষার্থীর» « অর্ধ দশক পর খুললো বাগদাদ-ইস্তাম্বুল স্থলপথ» « ইরাকের প্রধানমন্ত্রী আবাদির সঙ্গে আল সদরের জোট গঠন» « ট্রাম্পের চুক্তি মেনে নিতে আরব দেশগুলোর চাপের মুখে আব্বাস» « রাশিয়া সফর শেষে ফিরেছেন দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট» « সৌদি আরবের সঙ্গে হাইফা বন্দরের রেল যোগাযোগের পরিকল্পনা ইসরায়েলের» « ডুমুরিয়ায় যাত্রীবাহী বাস খাদে \ নিহত ৫, নারী-শিশুসহ আহত ২৩» « আর্জেন্টিনাকে উড়িয়ে শেষ ষোলোতে ক্রোয়েশিয়া» « শ্যামনগরে নদী ভাঙ্গনে এলাকাবাসী আতঙ্কিত

দাকোপে ৯ম শ্রেণির ছাত্রীর অপমৃত্যুর প্রতিবাদে বিচার চেয়ে সাংবাদ সম্মেলন

01 Dacop Confarance

দাকোপ (খুলনা) প্রতিনিধি : খুলনার দাকোপ উপজেলায় গতকাল মঙ্গলবার (১২ জুন) সকাল ১০টায় ৯ম শ্রেণির ছাত্রী পূর্ণিমার অপমৃত্যুর প্রতিবাদে বিচার চেয়ে সাংবাদ সম্মেলন করেন দাকোপ প্রেসক্লাবে। উপজেলার পানখালী ইউনিয়নের খাটাইল গ্রাম উন্নয়ন কমিটি’র উদ্দ্যোগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তার পরিবার মেয়ের আকাল মৃত্যুর প্রতিবাদ জানিয়ে বিচারের দাবী জানায়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন গ্রাম উন্নয়ন কমিটির সভাপতি আ. রাজ্জাক শেখ। বক্তব্যে বলেন, জেলার বটিয়াঘাটা উপজেলার বুনারাবাদ গ্রামের নিত্য ঢালীর ছেলে জীবন ঢালী দাকোপ উপজেলার খাটাইল গ্রামের মৃতঃ শিবপদ মহলদারের মেয়ে পূর্ণিমা মহলদারের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সম্পর্কের সুবাদে পূর্ণিমাকে ফুসলে নিয়ে ঢাকায় নিয়ে যায় জীবন ঢালী। এসময় পূর্ণিমার সাথে দৈহিক সম্পর্কে সে আন্ত:সত্ব হয়ে পড়ে। সংবাদ সম্মেলনে আরও জানা যায়, ডাক্তার কবিরাজ দিয়ে পূর্ণিমার গর্ভপাত ঘটায় জীবনের পরিবার। তারপর তাকে (পূর্ণিমা) ঢাকায় জীবনের কাছে পাঠালে কোন রকম সুচিকিৎসা ছাড়া ফেলে রাখে প্রেমিক জীবন ঢালী। চিকিৎসাবিহীন অবস্থায় দিন যত যাই ততই সে মৃত্যুও দিকে হেলে পড়ে। এক পর্যায় গত ৪ জুন সকাল আনুমানিক সাড়ে ১০টায় অপরিচিত ব্যক্তির মোবাইল নম্বর থেকে কল আসে পূর্ণিমার দাদার কাছে। সে মুঠোফোনে বলে তোমার বোন (পূর্ণিমা) মারা গেছে। সংবাদ সম্মেলনে আরও বলেন, পূর্ণিমার দাদা শ্যামল মহলদার জীবনের মায়ের কাছে ফোন করলে তার মা উত্তর দেয় তোমার বোনের লাশ নিয়ে আসছি, পানখালী ফেরিঘাটে এসে নিয়ে যাও। লাশ নিয়ে পূর্ণিমার পরিবারের স্বন্দেহ হলে থানা পুলিশের নিকট লাশ দিয়ে দেন। লাশ পুলিশের মাধ্যমে ময়না তদন্ত করে পূর্ণিমার পরিবার লাশ নিজ বাড়িতে দাহ্ কার্য সম্পন্ন করে। পুর্ণিমার পরিবারের সন্দেহ অনুযায়ী মেয়ের আকাল মৃত্যুর প্রতিবাদ ও বিচারের দাবী করেন সংশি−ষ্ট মহলের উপরে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, গ্রাম উন্নয়ন কমিটির সদস্য কুবেশ চন্দ্র রায়, বিনয় কৃষ্ণ গাইন, নাইস সরকার, শ্যামলী মহলদার, রাধীকা মন্ডল, পূর্ণিমার মা অর্পণা মহলদার ও দাদা শ্যামল মহলদার।

Share
[related_post themes="flat" id="258005"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com