,
সংবাদ শিরোনাম :
» « একনেকে ৪ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ইভিএম কেনার প্রকল্প অনুমোদন» « সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় দুঃস্থ পরিবার ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মাঝে টিন বিতরন» « সুলতানপুর উঠান বৈঠকে সরকারের উন্নয়ন তুলে ধরলেন সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি» « কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের সংবাদ সম্মেলন ॥ আজ সাতক্ষীরায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে জাতীয় নজরুল সম্মেলন» « সাতক্ষীরায় আদালতের নির্দেশ অমান্য করায় সাবেক ডিসি ও ইউএনও সহ তিন জনের কারাদন্ড» « পারুলিয়া ও কুলিয়ায় সমাবেশে অধ্যাপক ডাঃ আ,ফ,ম রুহুল হক এম,পি» « নজরুল ইসলামের নৌকার স্বপক্ষে পথসভা» « ভাঙ্গনের কবলে মুন্সীগঞ্জ বাজার রোড» « মরহুম চেয়ারম্যান মোশাররফের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া» « জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহের পুরস্কার বিতরণকালে বিভাগীয় কমিশনার ॥ শিক্ষার্থীরা আগামীতে বিশ্বকে প্রতিনিধিত্ব করবে» « কুয়েটকে বিশ্বসেরা বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করতে চাই ॥ কুয়েট ভিসি প্রফেসর ড. কাজী সাজ্জাদ হোসেন

জামিনের জন্য জজ আদালতে আবেদন খালেদা জিয়ার

এফএনএস: স্বাধীনতাবিরোধীদের মন্ত্রী করে জাতির মানহানি ও ‘মিথ্যা তথ্য দিয়ে’ জন্মদিন পালনের অভিযোগে দুই মামলায় হাকিম আদালত থেকে জামিন না পেয়ে এবার জজ আদালতে গেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতে গতকাল বুধবার তারা ওই দুই মামলায় জামিনের আবেদন করেন। এ আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের অন্যতম কৌঁসুলি তাপস পাল জানান, মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েসের আদালতে আগামি ৩১ জুলাই এ বিষয়ে শুনানির তারিখ রাখা হয়েছে। খালেদার আইনজীবীদের মধ্যে সানাউল­াহ মিয়া, মাসুদ আহমেদ তালুকদার ও নুরুজ্জামান তপন এদিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। ঢাকার মহানগর হাকিম আহসান হাবীব ও খুরশীদ আলম গত ৫ জুলাই এ দুই মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন নাকচ করে দেন। এর মধ্যে একটি মামলা দায়ের করেছেন বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকী। ২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে তিনি এই অভিযোগ দায়ের করেন। এ মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর তখনকার প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া স্বাধীনতাবিরোধীদের মন্ত্রী করে বাংলাদেশের মানচিত্র, জাতীয় পতাকা ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের অবমাননা করেছেন। আর মিথ্যা তথ্য দিয়ে জন্মদিন পালনের অভিযোগে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলাম ২০১৬ সালের ৩০ অগাস্ট খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অন্য মামলাটি দায়ের করেন। খালেদার আইনজীবীরা এ দুটি মামলায় জামিনের জন্য এর আগে সুপ্রিম কোর্টেও গিয়েছিলেন। কিন্তু হাই কোর্ট জামিন না দিয়ে খালেদা জিয়ার আবেদন দুটি দ্রুত নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দেয় নিম্ন আদালতকে। হাই কোর্টের ওই আদেশ আপিল বিভাগেও বহাল থাকে। জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাদন্ডের রায়ের পর পাঁচ মাস ধরে কারাবন্দি খালেদা জিয়া ইতোমধ্যে ওই মামলায় সর্বোচ্চ আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন। কিন্তু আরও বেশ কয়েকটি মামলায় গ্রেফতার থাকায় তার মুক্তি আটকে আছে।

Share
[related_post themes="flat" id="261394"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com