,
সংবাদ শিরোনাম :
» « ভোটের নতুন তারিখ ৩০ ডিসেম্বর» « আটুলিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ সংযোগ সেতুর বেহাল দশা, দেখার যেন কেউ নেই» « তাড়দ্দাহ খালের সেতু ভেঙে চলাচলে ঝুঁকিপূর্ন ॥ জরুরী ভিত্তিতে সংস্কারের দাবী গ্রামবাসিদের» « আশাশুনির শ্রীধরপুর টু খরিয়াটি সড়কের বেহাল দশা» « সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন হিসাবে ডাঃ রফিকুল ইসলামের যোগদান» « আলীপুর ৪ দলীয় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন» « শ্যামনগরে এক মিস্ত্রী গুরুত্বর আহত» « খুলনা বিভাগের সেরা করদাতাদের সম্মাননা» « ইভিএম ব্যবহারের সিদ্ধান্ত থেকে পেছানোর সুযোগ নেই -সিইসি» « খালেদার জন্য ৩টি ফরম সংগ্রহ করে বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু» « অর্থনৈতিক উন্নয়নে বাংলাদেশ

আজ উদযাপন করা হবে শ্যামাপূজা

আঃ হান্নান ইশ্বরীপুর (শ্যামনগর) থেকেঃ হিন্দু ধর্মালম্বীদের দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎসব শ্যামা পূজা আজ মঙ্গলবার রাতে অনুষ্ঠিত হবে। শ্যামা পূজার আরেক নাম দীপান্বিতা বা দীপাবলি। পৃথিবীর সকল অন্ধকার দুর করে পৃথিবীকে আলোকিত করার জন্য সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ঘরে ঘরে প্রজ্বলন করা হয় দীপান্বিতার প্রদীপ। আজ রাত ১২টায় শ্যামা বা কালি পূজা আরম্ভ হবে এবং বুধবার সন্ধ্যায় বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শ্যামা পূজার সমাপ্তি ঘটবে। শ্যামা পূজা বা দীপান্বিতা উপলক্ষ্যে শ্যামনগর উপজেলার বিভিন্ন মন্দির আলোকসজ্জায় সজিত করা হয়েছে। শ্যামনগর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী ঈশ্বরীপুর যশোরেশ্বরী কালী মন্দিরে শ্যামা পূজা মন্ডপের পক্ষ থেকে তোরণ নির্মাণ করা হয়েছে এবং পূজা উদযাপন কমিটি বিশেষ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। শ্যামা পূজা উপলক্ষ্যে যাতে করে কোন ধরনের নাশকতামূলক ঘটনা না ঘটতে পরে সেজন্য স্থানীয় প্রশাসন ও ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। । শ্যামাপূজার শুরুতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রদীপ প্রজ্বলন অতপর রাতে শ্যামা পূজা আরম্ভ হয়। পরদিন বুধবার সকালে প্রসাদ বিতরণ ও বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান, আলোকসজ্জা ও সাংস্কৃতিক আনুষ্ঠান এবং সর্বশেষ প্রতিমা বিসর্জন। শ্যামা পূজা উদযাপন করতে কোন ধরনের সমস্যা না হয় সে ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসন সজাগ আছে। উল্লেখ্য দুর্গাপূজার বিজয়ার পরবর্তী অমাবস্যার রাতেই দীপাবলীর আয়োজন করা হয়। দীপাবলীর রাতে অনুষ্ঠিত হয় শ্যামা কালী পূজা। দিওয়ালী নামেও পরিচিত দীপাবলী। পৃথিবীর সকল অন্ধকারের অমানিশা দূর করতেই এই আয়োজন। কেউ কেউ এ উৎসবকে দেওয়ালী উৎসব বলে থাকেন। ত্রেতা যুগে চৌদ্দ বছর বন বাস থাকারপর নবমীতে শ্রীরাম রাবণ বধের বিজয় আনন্দ নিয়ে দশমীতে অযোধ্যায় ফিরে আসেন। রামের আগমন বার্তা শুনে সমস্ত প্রজাকুল তাদের গৃহে প্রদীপ জ্বালিয়ে আনন্দ উৎসব পালন করেন। এই উৎসবকে দীপাবলি উৎসব বলা হয়।

Share
[related_post themes="flat" id="276652"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com