,
সংবাদ শিরোনাম :
» « অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে আগ্রহ বাড়ছে বিনিয়োগকারীদের» « ভিজিডি’র উপকারভোগী মহিলাদের মাঝে মুনাফাসহ সঞ্চয় ফেরত প্রদান» « ক্যান্সার আক্রান্ত অসহায় সাজেদা খাতুন ॥ গণশুনানীর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্যের আবেদন পাঠালেন» « সাতক্ষীরায় জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে ওরিয়েন্টেশন ॥ জেলায় ২ লক্ষ ৩৮ হাজার ৩২৭ জন শিশু ভিটামিন এ খাবেন» « তালায় এক মাদক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ» « চেক প্রতারনা মামলা ॥ সাবেক তাঁতীলীগ সভাপতি কারাদন্ড ও জরিমানা» « সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উদ্বোধন ॥ পুরস্কার বিতরণী আজ» « শ্যামনগর টেংরাখালী ওয়াপদা ভেঁড়িবাঁধে ভয়াবহ ভাঙ্গন ॥ পানিবন্দী হতে পারে দুই ইউনিয়নের কয়েক হাজার মানুষ» « প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ইরানের রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাত» « মদিনার দরগায় বার্ষিক মেলা উপলক্ষে জারি গান অনুষ্ঠিত» « কাদাকাটিতে শ্রীমদ্ভাগবত মহোৎসব সম্পন্ন

অ্যাপেনডিক্স অপারেশন করে ফেলেছেন? সুসংবাদ রয়েছে আপনার জন্য!

এফএনএস স্বাস্থ্য: মানুষের দেহ প্রকৃতির অসাধারণ এক সৃষ্টি। কিন্তু এতেও কিছু ঘাপলা আছে, আছে অপ্রয়োজনীয় কিছু অংশ, যেমন অ্যাপেনডিক্স। স্বাস্থ্যগত কারণে অনেকেরই অ্যাপেনডিক্স অপারেশন করে ফেলে দিতে হয়। তাদের জন্য রয়েছে সুখবর। অ্যাপেনডিক্স ছাড়া মানুষদের পারকিনসন’স ডিজিজ কম হয়, হলেও দেখা দেয় দেরিতে। সায়েন্স ট্রান্সলেশন মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় জানা গেছে এই তথ্য। যাদের অ্যাপেনডিক্স অপসারণ করা হয়েছে, তাদের ক্ষেত্রে পারকিনসন’স দেখা দেয় গড়ে ৩.৫ বছর দেরিতে। এমনকি তাদের পারকিনসন্স হওয়ার ঝুঁকি কমে যায় প্রায় পাঁচগুণ। পারকিনসন’স নিয়ে বেশ বড় একটি গবেষণা ছিলো এটি। ১৬ লাখ মানুষের ৫২ বছরের তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়। এই তথ্য নেওয়া হয় সুইডিশ ন্যাশনাল পেশেন্ট রেজিস্ট্রি থেকে। গবেষকরা রোগীদের রোগ শনাক্তকরণ, চিকিৎসা, বয়স, লিঙ্গ এমনকি অবস্থানেরও তথ্য নেন, যাতে তাদের পারকিনসন’স ডিজিজ সংক্রান্ত তুলনা করতে সুবিধা হয়। এর আগেও কিছু গবেষণায় অন্ত্রের বিভিন্ন অঙ্গের সাথে পারকিনসন’স ডিজিজের সম্পর্ক দেখা হয়েছে। দেখা যায়, রোগীদের অন্ত্রের জীবাণুগুলো সুস্থ মানুষের জীবাণুর তুলনায় ভিন্ন থাকে। এমনকি এটাও দাবি করা হয় যে, কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সাধারণ একটি সমস্যা হতে পারে পারকিনসন’স এর প্রাথমিক একটি লক্ষণ। গবেষকরা অনেক দিন ধরেই ধারণা করছিলেন, আলফা-সাইনিউক্লেইন নামের এক ধরণের প্রোটিন পারকিনসন’স ডিজিজের জন্য দায়ী। তা আমাদের সারা শরীরেই আছে, তবে সবচেয়ে বেশি আছে মস্তিষ্কে। তা নার্ভ সিগন্যালিংয়ের কাজ করে। পারকিনসন’স রোগীদের শরীরে এই প্রোটিন থোকা থোকা হয়ে জমে যায়, স্নায়ু কোষ মেরে ফেলে, এতে রোগীর শরীরে কাঁপুনি, অসাড়তা ও ধীরতা দেখা যায়। নতুন গবেষণাতেও এ প্রোটিনটির বিষয়ে প্রমাণ পাওয়া যায়। এটাও দেখা যায় যে, এই প্রোটিনটি অ্যাপেন্ডিক্সে বেশি জমা হয়। এ কারণে যাদের অ্যাপেনডিক্স আছে, তাদের পারকিনসন’স হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে। সূত্র: আইএফএলসায়েন্স

Share
[related_post themes="flat" id="276731"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com