,
সংবাদ শিরোনাম :

আশাশুনির চাকলা বেড়িবাঁধ ভাঙ্গনের ১২ দিন অতিবাহিত

17 Asasuni Nodi Vanon

জি.এম আল ফারুক/মাসুম বিল্লাহ: আশাশুনির প্রতাপনগর ইউনিয়নে চাকলার ভেঙ্গে যাওয়া বেড়িবাঁধটি ১২ দিন অতিবাহিত হলেও আজও বাঁধটি মেরামত করা সম্ভব হয়নি। ১২ দিন ধরে চাকলা গ্রামের নিন্মাংশে জোয়ার-ভাটা ওঠানামা করায় ইতোমধ্যে চাকলা গ্রামের জাহিদুল ঢালী, আসাদুল বিশ্বাস, আবুল কালাম বিশ্বাস, জাহাঙ্গীর ঢালী, জিয়াউল বিশ্বাস, সাইফুল্লাহ বিশ্বাসের মাটির ঘরসহ প্রায় ১০/১২ টি মাটির ঘর ভেঙ্গে পড়েছে। লোনা পানি উঠা নামা করায় ক্ষতিগ্রস্থ এলাকার মানুষের পয়ঃনিস্কাসনের অসুবিধা সহ রান্নার পানির সংকট দেখা দিয়েছে। গত ২৭ নভেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা ক্ষতিগ্রস্থ বাঁধটি পরিদর্শন ও ভাঙন এলাকার সার্বিক খোঁজ খবর নিয়ে সাড়ে আট মেট্রিক টন চাউল বরাদ্দ করেছেন। ইতিমধ্যে বরাদ্দকৃত চাউল স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে হস্তান্তর করেছেন বলে ইউএনও অফিস সূত্রে জানাগেছে। ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন বলেন- চাকলার এই হাইলচরের বেড়িবাঁধটি দীর্ঘ দিন ধরে মারাত্মক জরাজীর্ণ অবস্থায় আছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের কাছে বার বার সংস্কার দাবি করলেও তাঁরা সংস্কার না করায় আজ এ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এলাকাবাসীর পক্ষে অনতিবিলম্বে উক্ত হাইলচরের ভাঙ্গনসহ এ ইউনিয়নের সকল ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ মেরামতে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দাবি জানান। প্রসঙ্গতঃ বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) কপোতাক্ষ নদের রাতের জোয়ারে প্রতাপনগর ইউনিয়নের চাকলা গ্রামের হাইলচর এলাকার বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে যায়।

Share
[related_post themes="flat" id="280383"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com