,
সংবাদ শিরোনাম :
» « জাল নোট কারবারিদের নিয়ন্ত্রণে নানা উদ্যোগ» « সাতক্ষীরা শহরের প্রাণকেন্দ্রে পাইকারি লিছুর হাট : রাতেই ব্যবসায়ীদের শহরে আগমন» « সাতক্ষীরায় সরকারী কর্মকর্তা ও গণ্যমান্য ব্যক্তির সম্মানে এমপি রবির ইফতার মাহফিল» « দেবহাটায় তথ্য অধিকার বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত» « খুলনায় ডিবি পুলিশের পৃথক অভিযানে অস্ত্র, গুলি মাদক সহ দুই আসামী আটক» « মুক্তিযোদ্ধা আলেম ওলামা ও এতিমদের সম্মানে প্রধানমন্ত্রীর ইফতার» « মধুমাস জ্যৈষ্ঠ এবং বাস্তবতা» « বিশ্বের সবচেয়ে পুরনো মসজিদ ॥ গ্রেট মস্ক অব আলেপ্পো (সিরিয়া ৭১৫ সাল)» « কার দখলে দিল্লি? মোদী, রাহুল না অন্য কেউ?» « কলারোয়ায় ছাত্রলীগ নেতার আঙুল কেটে নেওয়ায় ঘটনায় থানায় মামলা ॥ উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত» « নুরনগরে দীর্ঘদিনের চলাচলের পথ বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ

বুধহাটা কলেঃ স্কুলের নিয়োগ কার্যক্রমে অনিয়মের অভিযোগ তদন্ত

আশাশুনি অফিস: আশাশুনির বুধহাটা বিবিএম কলেজিয়েট স্কুলে শিক্ষক নিয়োগে অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রতিকার এবং নিয়োগ কার্যক্রম বন্ধের দাবীতে দায়েরকৃত অভিযোগের তদন্ত অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সকালে তদন্ত কর্মকর্তা স্কুলে হাজির হয়ে বাদী ও বিবাদীর জবানবন্ধী গ্রহন করেন। বুধহাটা গ্রামের মৃত রমজান আলী সরদারের পুত্র নুরুজ্জামান জুলু বাদী হয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষকসহ কমিটি সকল সদস্যসহ উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের বিবাদী করে ২৮/১০১৮ তাং আশাশুনি সহকারী জজ আদালতে দেং ৮৬/২০১৮ নং মামলা দায়ের করেন। স্কুলের গভর্নিং বডি কর্তৃক ০৩/১০/১৮ তাং সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রধান শিক্ষকের যোগদান ও অনুমোদন এবং স্কুলে সহকারী প্রধান শিক্ষক এর শূন্যপদে নিয়োগ কার্যক্রম বেআইনী ও তঞ্চকী দাবী করে স্থগিতের আবেদন করা হয়। সাথে সাথে চলতি কমিটির মেয়াদ ৮/১/১৯ তাং শেষ হচ্ছে বিধায় ১৫/১১/১৮ তাং কমিটি নির্বাচনের তফশীল ঘোষণা করায় বিধি বহির্ভূত ও দুর্নীতির ভিত্তিতে চলমান কমিটির মাধ্যমে তড়িঘড়ি করে নিয়োগ কার্যক্রম বন্ধ রাখার আবেদন জানান হয়। বিজ্ঞ আদালত স্কুল কর্তৃপক্ষকে কারণ দর্শানোর আদেশ করেন। কর্তৃপক্ষের জবাব প্রাপ্তির পর আদালত অভিযোগ তদন্তের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশাশুনিকে দায়িত্ব অর্পন করলে বুধহাটা ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা বুধবার সরেজমিন তদন্তে আসেন। তদন্ত কর্মকর্তা বাদী ও বিবাদীর লিখিত/মৌখিক জবানবন্ধী গ্রহন করেন। প্রধান শিক্ষক দাউদ হোসেন বলেন, দীর্ঘ তদন্ত হয়েছে। সবকিছু খোলামেলা ভাবে তদন্ত কর্মকর্তাকে বলা হয়েছে। নিয়োগ কার্যক্রম আদালত স্থগিত করেননি। তবে নিয়োগ কার্যক্রম চলবে কিনা সেটি গভর্নিং বডির সিদ্ধান্তের পর বলা যাবে। বিবাদী নুরুজ্জামান জুলু বলেন, প্রধান শিক্ষকের এখানো বেতন/এমপিও হয়নি, তার দ্বারা এবং কমিটির মেয়াদ শেষ প্রায় এমন কমিটির মাধ্যমে নিয়োগ বন্ধ করে নতুন কমিটির মাধ্যমে সুষ্ঠু ও যথাযথ পরীক্ষার মাধ্যমে যোগ্য শিক্ষক নিয়োগ করা হোক সেটি আমরা চাই। তদন্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান বলেন, বাদী-বিবাদীর জবানবন্ধী নিয়েছি। ইউএনও স্যারকে প্রতিবেদন দেওয়া হবে।

Share
[related_post themes="flat" id="280493"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com