,
সংবাদ শিরোনাম :
» « দুর্গম এলাকাকে অগ্রাধিকার দিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার উদ্যোগ» « সাতক্ষীরা ডিজিটাল ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের স্বাস্থ্য সেবায় এগিয়ে চলা এবং অত্যাধুনিক মেশিনের উপস্থিতি (এক)» « সাতক্ষীরার ফিংড়ী কুঁচে চাষ প্রকল্প উদ্বোধন করলেন এমপি রবি» « জোড়া সেঞ্চুরিতে সেমির আগে ভারতের বড় জয়» « তেলবাহী ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে কলেজ প্রভাষিকা নিহত: আহত-১, গ্রেফতার-২» « শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের পৌর আট নং ওয়ার্ড কমিটি গঠন» « কাকবাসিয়ায় খেয়াঘাট না থাকায় পারাপারে ভোগান্তি» « চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী» « যশোর র‌্যাবের পৃথক অভিযানে ২২৮ পিচ ইয়াবা সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক» « সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজ আইডিজি এর জন্য মনোনীত» « বাজার ব্যবস্থা অস্থিতিশীল এবং মসলা বাজারে আগুন

চুল কালো করতে চাই মাত্র দুটি উপাদান

এফএনএস : কার্যকর ও স্বাস্থ্যকর উপায়ে চুল কালো করতে চাইলে বেছে নিতে পারেন আমলকী ও পানি। আমলকীতে আছে নানান ঔষধি গুণ যা ব্যবহার করা নিরাপদ এবং কয়েকদিন ব্যবহারে চুল কালো হয়। পাশাপাশি চুল পড়াও কমে। রূপচর্চা-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে এই বিষয়ের ওপর প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে আমলকী ব্যবহার করে চুল কালো করার পন্থা এখানে দেওয়া হল। ১. ১০০ গ্রাম শুকনা আমলকী লোহার কড়াইয়ে নিন । ২. কড়াইটি বেশি তাপে গরম করুন। এরপর এতে শুকনা আমলকীর টুকরা ছেড়ে দিয়ে কম তাপে ভাজুন। তাপ বাড়িয়ে দিয়ে আমলকী ঠিক মতো ভাজা হবে না এবং রং পরিবর্তন হয়ে যাবে। ৩. আমলকী কালো হয়ে আসা পর্যন্ত ভাজুন। এতে ২০ থেকে ৩০ মিনিট সময় লাগতে পারে। এরপর এক গ্লাস পানি ঢেলে তাপ বাড়িয়ে দিন। ৪. সাত থেকে আট মিনিট ধরে কম তাপে ফুটান। ৫. সারা রাত পাত্রটি নাড়াচাড়া না করে রেখে দিন। পানি ঠাণ্ডা হয়ে আসবে। ৬. সকালে আমলকী নরম হয়ে আসলে তা মিহি করে বেটে নিন। এতে মসৃণ পেস্ট তৈরি হবে। মনে রাখবেন : * পরিষ্কার চুলে এটা লাগাতে হবে। মাথায় যেন কোনো ময়লা বা তেল না থাকে। শুকনা চুলে ঘরে তৈরি আমলকীর পেস্ট লাগাবেন। * মাথায় দুই ঘন্টা রেখে চুল ধুয়ে ফেলুন। তারপর শ্যাম্পু বা অন্য কোনো প্রসাধনী চুলে লাগানো যাবে না। একদিন পর পর এই পদ্ধতি অনুসরণ করুন। * পাঁচ ছয়বার ব্যবহারেই এর ফলাফল চোখে পড়বে। তাই ধৈর্য ধরে ব্যবহার করতে হবে। সাদা চুল কালচে হয়ে আসলে নিশ্চিত থাকুন যে খুব সহজে তা যাবে না। যখন রং হালকা হওয়া শুরু করবে তখন সপ্তাহে বা মাসে একবার করে ব্যবহার করলেই হবে। প্রাকৃতিক উপাদান হওয়ায় এর কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। চুলে আমলকী ব্যবহারের আরও উপকারিতা : – মাথার চুল ও ত্বকের শক্তি বাড়ায়। – চুলের অকাল পক্কতা ও পড়ে যাওয়া রোধ করে। – রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। – চুল পড়া কমায়। – মাথার ত্বকের শুষ্কতা ও খুশকি দূর করে। – চুল ও মাথার ত্বকের সংক্রমণ কমায়। যেমন- উকুন দূর করে।

Share
[related_post themes="flat" id="282616"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com