,
সংবাদ শিরোনাম :
» « অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে আগ্রহ বাড়ছে বিনিয়োগকারীদের» « ভিজিডি’র উপকারভোগী মহিলাদের মাঝে মুনাফাসহ সঞ্চয় ফেরত প্রদান» « ক্যান্সার আক্রান্ত অসহায় সাজেদা খাতুন ॥ গণশুনানীর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্যের আবেদন পাঠালেন» « সাতক্ষীরায় জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে ওরিয়েন্টেশন ॥ জেলায় ২ লক্ষ ৩৮ হাজার ৩২৭ জন শিশু ভিটামিন এ খাবেন» « তালায় এক মাদক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ» « চেক প্রতারনা মামলা ॥ সাবেক তাঁতীলীগ সভাপতি কারাদন্ড ও জরিমানা» « সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উদ্বোধন ॥ পুরস্কার বিতরণী আজ» « শ্যামনগর টেংরাখালী ওয়াপদা ভেঁড়িবাঁধে ভয়াবহ ভাঙ্গন ॥ পানিবন্দী হতে পারে দুই ইউনিয়নের কয়েক হাজার মানুষ» « প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ইরানের রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাত» « মদিনার দরগায় বার্ষিক মেলা উপলক্ষে জারি গান অনুষ্ঠিত» « কাদাকাটিতে শ্রীমদ্ভাগবত মহোৎসব সম্পন্ন

৮০ বছর পেরিয়েও বিমলা বয়স্ক ভাতা থেকে বঞ্চিত

01 Dacop Brido

দাকোপ (খুলনা) প্রতিনিধি ॥ বয়স প্রায় ৮০ বছর পার হলেও খুলনার দাকোপের ঢাংমারী খ্রিষ্টান পাড়ার হতদরিদ্র বিমলা সরকারের ভাগ্যে আজও পর্যন্ত জোটেনি বয়স্ক ভাতা। এমনকি কেউ তাকে দেয়নি একটি ভিজিডি কার্ডও। ফলে অতি কষ্টে ৩ ছেলের পৃথক সংসারে তিনি অবহেলিত হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। জানা যায় উপজেলার বানিশান্তা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের খ্রিষ্টান পাড়ার বাসিন্দা মৃত আশুতোষ সরকারের স্ত্রী বিমলা সরকার সহায় সম্পত্তি যা ছিল সবটুকু ঢাংমারী নদী গর্ভে হারিয়ে ফাদারের দেয়া দুই কাটা জায়গার উপর একটি বাড়িতে বসবাস করেন। বর্তমানে বয়সের ভারে ন্যুয়ে পড়েছেন বিমলা। বাঁশের লাঠিতে ভর দিয়ে চলাফেরা করেন তিনি। তার তিন ছেলে শচীন্দ্রনাথ, সুজয় ও মন্টু সরকার মাছ কাঁকড়া মেরে পৃথক ভাবে জীবিকা র্নিবাহ করে থাকেন। দীর্ঘ কয়েক বছর পূর্বে স্বামীর মারা যাওয়ার পর থেকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির কাছে বহুবার কাকুতি মিনতি করেও এপর্যন্ত একটি বয়স্ক ভাতার কার্ড পাননি বিমলা। তিন ছেলের পৃথক সংসারে অভাব অনটনের সাথে পাল্লা দিয়ে অর্ধহারে অনাহারে জীবন যাপন করছেন তিনি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্টানের দিন বিনা পানি ভোট কেন্দ্রের সামনে এক মুদি দোকানে বসে ছিলেন বিমলা। ওই দোকানে বসে এপ্রতিবেদক কেমন আছেন বলতেই অতি দুঃখের সাথে এসব কথাগুলো বলছিলেন তিনি। তিনি বলেন আর কয়দিন বাঁচব কিনা জানি না। শেষ বারের মতো শেখ হাসিনার নৌকায় ভোট দিয়ে গেলাম। ভগবানের কৃপায় হাসিনাকে যেন আবার প্রধান মন্ত্রী দেখতে পাই। স্থানীয় ইউপি সদস্য বিপুল সরকারের কাছে এবিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন এবার কার্ড আসলে তাকে একটি দেয়া হবে। এবিষয়ে বানিশান্তা ইউপি চেয়ারম্যান সুদেব রায় বলেন বিমলাকে তিনি ব্যক্তিগত ভাবে চেনেন। তিনি বলেন বিমলা একজন খুব অসহায় মহিলা। বছর খানের আগে বিমলার স্বামী আশুতোষ মারা গেছে। নিয়মে আছে পুরুষ মরলে পুরুষের কার্ড পুরুষকে দিতে হবে। দেখি একটু অনিয়ম করে হলেও তার স্বামীর কার্ডটা তাকে দেয়া যায় কি না। তিনি সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড মেম্বরের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান। এব্যাপারে উপজেলা সমাজসেবা অফিসার অমিত কুমার সমাদ্দার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) বলেন ইউনিয়ন কমিটি দেয়া তালিকা অনুযায়ী কার্ড দেয়া হয়। তারপরও ওই ইউনিয়নে আমাদের যে কর্মি দায়িত্বে আছে তার মাধ্যমে খোজ খবর নিয়ে দেয়ার মতো হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Share
[related_post themes="flat" id="283164"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com