,
সংবাদ শিরোনাম :
» « নুসরাত হত্যা ॥ বিচার বিভাগীয় তদন্ত চায় টিআইবি» « জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম উদ্বোধন» « মধুতে ভেজাল মিশ্রন ঃ ক্রেতারা সাবধান!» « কোদন্ডায় স্বামীর হাতে স্ত্রী নিহত ॥ স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা॥ ঘাতক স্বামী আটক» « বনবিভাগের অভিযানে অবৈধ জাল বিষের বোতল ও নৌকা আটক।» « আহমদ শরীফকে ৩৫ লাখ টাকা অনুদান দিলেন প্রধানমন্ত্রী» « নিষিদ্ধ করা হল কংগ্রেসের ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ বিজ্ঞাপন, রাহুলকে চিঠি কমিশনের» « তিন কেন্দ্রে দাপাদাপি শাসকদলের, কেন্দ্রীয় বাহিনী কই? বিরোধীদের তোপের মুখে কমিশন» « সড়কে সড়কে থেমে নেই দূর্ঘটনা» « চাম্পাফুল বছরের শুরু থেকে চিংড়ী ঘেরগুলোতে ব্যাপক ভাইরাসের আক্রমন» « যশোরে গাঁজা সহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক

আশাশুনির মৃতপ্রায় মরিচ্চাপ নদী ॥ খননের দাবি এলাকাবাসীর

05 Asasuni Nodi Vanon

জিএম আল ফারুক/জিয়াউর রহমান : আশাশুনির মরিচ্চাপ নদীটি নাব্যতা হারিয়ে এখন ছোট খালে পরিণত হয়েছে। শোভনালী ব্রীজ হতে কামালকাটি পর্যন্ত নদীটি সরু খালে পরিনত হয়েছে। পশ্চিম দিকের বাকি অংশ আর অবশিষ্ট নেই। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের ইজারা দেওয়ার কল্যাণে নদীটি এখন চাষের জমিতে পরিগণিত। একটি নৌকা চলার জায়গাও অবশিষ্ট নেই। একটি সময় ছিল যখন মরিচ্চাপ নদী দিয়ে লঞ্চ, ষ্টিমার ও বড় বড় মালবাহী নৌকার আনাগোনায় মুখরিত থাকত নদীপারে অবস্থিত হাট-বাজারগুলি।পানি উন্নয়ন বোর্ডের কিছু অসাধু কর্মকর্র্তার যোগসাজশে নদীর ভরাট হওয়া অংশ এলএ কেসের মাধ্যমে ইজারা দিয়ে নদীটিকে অস্বীকার করে নতুন বসতি স্থাপন করা হয়েছে। এ এলাকার প্রধান আয়ের উৎস চিংড়ি চাষ হলেও সম্পুর্ন পরিকল্পিত ভাবে মুল নদীটি মেরে ফেলে চিংড়ি চাষের জন্য পানি সরবরাহের ব্যবস্থাও বন্ধ করা হয়েছে। শুকনো মৌসমে চিংড়ি ঘের গুলি শুকিয়ে থাকে আর বর্ষা মৌসম এলেই ডুবে যায় পুরো শোভনালীসহ পার্শ্ববর্তী দেবহাটা, কালীগঞ্জ ও সাতক্ষীরা সদরের নদী সংলগ্ন বিস্তির্ন এলাকা। এতে মানুষ যেমন আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয় তেমন ডুবে থাকার কারনে বর্ষা মৌসমে শিশুদের পানিবাহিত রোগ-পীড়া লেগেই থাকে। এলাকাবাসী যতই ক্ষতিগ্রস্ত হোক নতুন নতুন ইজারা দিয়ে পাউবো’র একটি পক্ষ বেশ ফুলে ফেঁপে উঠেছে। মরিচ্চাপ নদীটি আশাশুনি উপজেলা সদরের বুক চিরে শোভনালী উপর দিয়ে অতিবাহিত হয়ে একটি শাখা ইছামতি নদীতে ও আরেকটি শাখা ব্যাংদহা বাজার হয়ে সাতক্ষীরা শহরের প্রাণসায়ের খালে গিয়ে মিশেছে। জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাবে এবং অবৈধভাবে নদী দখলের ফলে নদীটি তার যৌবন হারিয়ে মৃতপ্রায়। এলাকা ও এলাকার মানুষের জীবন-জীবিকার স্বার্থে অতি দ্রুত নদীটি খনন করে নদীর জীবন ফিরিয়ে আনা অতীব জরুরী। পানি নিস্কাশন ব্যবস্থার পথ দিন দিন যে ভাবে সংকুচিত হয়ে আসছে তা রোধ করাসহ এলাকার সার্বিক স্বার্থে নদীটি পুনঃ খননের জন্য উর্দ্ধতন কতৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসি।

Share
[related_post themes="flat" id="285486"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com