,
সংবাদ শিরোনাম :
» « রাত পোহালেই দ্বিতীয় ধাপের ভোট ॥ ## ডেপুটি স্পিকার রাব্বী ও এমপি কমলকে এলাকা ত্যাগে ইসির নির্দেশ ॥ ## পর্যটকদের পর্যটন এলাকায় গমণেচ্ছুকে নিরুসাহিতের তাগিদ» « জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মদিন আজ» « সাতক্ষীরা বই মেলার আলোচনা সভায় সচিব আব্দুস সামাদ ॥ বই মানুষকে আলোকিত হিসাবে গড়ে তুলতে পারে» « ভোমরা স্থল বন্দর পরিদর্শন করলেন নৌ পরিবহন সচিব আব্দুস সামাদ ঃ উন্নয়নের প্রতিশ্র“তি ব্যক্ত» « সাতক্ষীরায় স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার ভেল্ডিং স্টেশন উদ্বোধন করলেন অতি: সচিব মাকসুদা খাতুন» « ভালুক চাদঁপুর কলেজে সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি ॥ একজন শিক্ষিত মা পারে একটি শিক্ষিত সমাজ গড়তে» « আশাশুনি নৌকার প্রার্থী মোস্তাকিমের সাথে পূজা উদযাপন পরিষদের মতবিনিময়» « গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ডাকসুর নবানির্বাচিতদের শুভেচ্ছা বিনিময়» « বিশ্বখ্যাত মুসলিম স্থাপত্য ॥ তোপকাপি প্রাসাদ (তুরস্ক)» « সাতক্ষীরা সমবায় অফিসে পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত» « অগ্নিঝরা মার্চ

বার্ষিক ওরছ আজ সকল প্রস্তুুতি সম্পন্ন

11 Kaligonj Oros

ফরিদুল কবির মথুরেশপুর থেকে॥ কালিগঞ্জ উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামে হযরত পীর কাঙ্গালীর (ফকির পাড়া) জামে মসজিদ ও পীরের দরগাহ শরীফ অবস্থিত। পীর কাঙ্গালীর আগমন স্থান ও সময় সম্পর্কে সঠিক ইতিহাস কারো জানানেই। ইতিহাস পর্যালোচনা করে দেখাগেছে, খ্রিষ্টিয় ত্রয়োদশ শতাব্দিতে এ অঞ্চলে ইসলাম প্রচারের কাজ শুরু হয়েছিল। হয়তো সে সময় তিনি ইসলাম ধর্ম প্রচারের কাজে এ অঞ্চলে এসেছিলেন। ঐতিহাসিকগন ধারণা করেন, উপমহাদেশের বিখ্যাত সুফি দরবেশ পীর শাহ্ জালাল (রঃ) এর সাথে ৩৬০ জন শিষ্য এদেশে এসেছিল। এ অঞ্চলে হযরত পীর কাঙ্গালী (রঃ) ছিলেন তাদের অন্যতম একজন। তিনি উপজেলার বসন্তপুর গ্রামে ক্ষীর খেজুর তলায় মসজিদ ও আস্তানা গেড়ে এই এলাকায় থেকে ইসলাম ধর্ম প্রচার করতেন। তিনি অলৌকিক ক্ষমতার অধিকারী হলেও থাকতেন লোকালয় থেকে দূরে। আলেম ওলামাসহ স্থানীয় কয়েকজন প্রবীণ ব্যক্তির মাধ্যমে জানা গেছে, সুদূর আরব দেশ হতে হযরত শাহ্ জালাল (রঃ) পীরের সঙ্গে ৩৬০ জন আউলিয়া এদেশে ইসলাম প্রচারে এসেছিলেন তার মধ্যে পীর কাঙ্গালী (রঃ) অন্যতম। হযরত শাহ্ জালাল (রঃ) পীর সাহেবের নির্দেশ মোতাবেক তিনি দক্ষিণ খুলনা ভাটী অঞ্চলে ইসলাম ধর্ম প্রচার করেন। ইসলাম প্রচার করতে এসে ক্ষীর খেজুর গাছ তলায় তিনি আস্তানা গাড়েন। সেই সময় এখানে একটি মসজিদও গড়ে ওঠে। তবে তিনি মৃত্যুবরণ করলে কোন স্থানেই তাকে সমাধিত করা হয় আজ পর্যন্ত সঠিক কেউ বলতে পারেনি। পরে স্থানীয় এলাকাবাসি মসজিদটি সংস্কার করার জন্য কাজ শুরু করলে মাটির (বর্তমান মসজিদের মিনারের) নিচে প্রাচীন কিছু আলামত পাওয়ায় অনেকেই ধারনা করে এটি হয়তো হযরত পীর কাঙ্গালী (রঃ) মাজার হবে। সাথে সাথে সেটি মাটি দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়। লোকশ্র“তি মতে প্রায় চার শত বছর পূর্বে অলৌকিক ক্ষমতার দুইটি ক্ষীর খেজুর গাছ আছে। এই গাছের পাতা, ডালপালা পোড়ালে তাদের ক্ষতিও হয়েছে, এমনকি পাগলও হয়েছে অনেকেই। তখন থেকেই এ জায়গার নামকরণ করা হয় পীর কাঙ্গালি (ক্ষীর খেজুরতলা বা ফকির পাড়া)। এলাকার মানুষের মধ্যে আজও বিশ্বাস এই পীরের দরবারে এসে মান্নত করলে তার মনে বাসনা পূর্ন হয়। এর ফলে দেশ বিদেশের বড় বড় চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান থেকে ফিরে এসে রোগিরা নিরুপায় হয়ে অবশেষে এই পীরের দরগায় আসেন। পানি পড়া, তেল পড়া বা স্বপ্নের মাধ্যমে অনেক মানুষ আপদ-বিপদ ও কঠিন রোগ থেকে পরিত্রাণ পেয়েছেন এবং পাচ্ছেন বলে জানা গেছে। পীর কাঙ্গালী জামে মসজিদ ও ওরছ শরীফ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম এ প্রতিনিধিকে জানান, প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও বার্ষিক ওরছ শরীফ অনুষ্ঠিত হবে। পীরের স্মরণে প্রতি বছর ৩০শে ফাল্গুন এই পীরের দরগাহ শরীফ ক্ষীর খেজুর গাছ তলায় এই ওরছ শরীফ অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। ওরছ শরীফ উপলক্ষে মসজিদ ও দরগাহ শরীফ এলাকাগুলো অপরূপ সাজে সাজানো হয়েছে। ইতিমধ্যে মাহফিল মাঠে সুবিশাল সামিয়ানা, প্যান্ডেল, গেট, অভাবনীয় আলোক উজ্জ্বল লাইটিংসহ দরগাহ এলাকায় আলোক সজ্জা ও ডেকোরেশনের কাজ শেষ হয়েছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ভক্তদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে দরগাহ প্রাঙ্গন। আল্লাহ পাকের ইচ্ছায় ও পীর কেবলার ওছিলায় দূর-দুরান্ত থেকে জটিল ও কঠিন রোগিরা মুক্তির আশায় এখানে ছুটে আসেন ও মান্নত করেন। ভক্তরা যে যার মান্নতের জন্য গরু, ছাগল, হাঁস, মুরগি নিয়ে আসতে শুরু করেছেন। ওরছ শরীফ বৃহস্পতিবার ভোর থেকে সারাদিন ব্যাপি অনুষ্ঠিত হবে। সন্ধায় পবিত্র ফাতেহা শরীফ তারপর মাহফিল মাঠে ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। মাহফিলে প্রধান বক্তা থাকবেন মসজিদ-এ বেলাল (রঃ) এর খতিব ও কায়েরিয়া তৈয়্যেরিয়া কামিল মাদ্রাসার আরবী প্রভাষক আলহাজ্ব মুফতী মুহাম্মদ নাজমুস সায়াদাত ফয়েজী, মোহাম্মদপুর, ঢাকা। বিশেষ বক্তা থাকবেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বক্তা আলহাজ্ব হযরত মাওঃ আমিনউদ্দীন, হাফেজ মাওঃ মাহাবুবর রহমান। মাহফিলে সভাপতিত্ব করবেন পীর কাঙ্গালী (ফকির পাড়া) জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব হযরতুল আল্লামা মুফতী আবু তাহের।

Share
[related_post themes="flat" id="287040"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com