,
সংবাদ শিরোনাম :

বরিশালে বাস-মাহেন্দ্র সংঘর্ষে নিহত ৭

এফএনএস : বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলায় বাস ও মাহেন্দ্রর সংঘর্ষে সাতজনের প্রাণ গেছে; এ ঘটনায় আহত হয়েছেন শিশুসহ আরও তিনজন। বরিশাল বিমানবন্দর থানার ওসি আব্দুর রহমান মুকুল জানান, উপজেলার তেতুঁলতলা এলাকার বরিশাল-বানারীপাড়া সড়কে শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনায় হতাহতরা সবাই মাহেন্দ্র যাত্রী। নিহতরা হলেন বরিশালের কাশিপুর গণপাড়া এলাকার বাসিন্দা ইদ্রিস খানের ছেলে মাহেন্দ্র চালক সোহেল খান (২৫), যাত্রী নগরীর ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের এনছাফ আলীর ছেলে খোকন মিয়া (৪০), বাকেরগঞ্জের দাড়িয়াল এলাকার ইউনুস সিকদারের ছেলে মানিক সিকদার (৩০), ঝালকাঠির বাসিন্দা সরকারি বিএম কলেজের শিক্ষার্থী শীলা হালদার (২৪) এবং বাবুগঞ্জের মাধবপাশা এলাকার পারভিন বেগম (৩৫), মেহেরুন্নেছা বেগম (৫৫) ও তাইয়ুম (৭)। আহত আব্দুল্লাহ (৭), তন্নী (১৫) ও দুলাল হাওলাদারকে (৩০) বরিশাল শেরে -ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়ছে। তাদের মধ্যে তাইয়ুম ও তন্নী নিহত পারভিন বেগমের সন্তান এবং আব্দুল্লাহ নিহত মেহেরুন্নেছার নাতি। ওসি বলেন, বানারীপাড়া থেকে বরিশালগামী দুর্জয় পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে বিপরীতমুখী একটি মাহেন্দ্রর মুখোমুখি সংষর্ষ হয়। এ সময় মাহেন্দ্রর দশ যাত্রী আহত হয়। “তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসকেরা তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও তিনজনের মৃত্যু হয়।” এদিকে এ ঘটনা তদন্তে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো.নূরুজ্জামানকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান জানিয়েছেন। বরিশাল মহানগর পুলিশের কমিশনার মোশাররফ হোসেন বলেন, ঘটনার কারণ চিহ্নিত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইননুগ ব্যবস্থা গ্রহণ হবে। এরই মধ্যে পুলিশ বাদী হয়ে বিমান বন্দর থানায় দুর্জয় পরিবহনের চালক ও তার সহকারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

Share
[related_post themes="flat" id="287354"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com