,
সংবাদ শিরোনাম :

সাতক্ষীরার আ’লীগ নেতা পিস্তল সহ বিমানবন্দরে আটক

astro

এফএনএস : ঘোষণা না দিয়ে অস্ত্র ও গুলি নিয়ে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে প্রবেশ করায় এবার সাতক্ষীরার এক আওয়ামী লীগ নেতাকে আটক করেছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। শাহজালালের এভিয়েশন সিকিউরিটি (এভসেক) বিভাগের পরিচালক নূরে আলম সিদ্দিকী বলেন, এসএম মুজিবুর রহমান নামের ওই যাত্রীর শুক্রবার সন্ধ্যায় নভোএয়ারের ফ্লাইটে যশোর যাওয়ার কথা ছিল। “সন্ধ্যা ৭টার ফ্লাইট ধরতে ৬টায় তিনি অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে আসেন। কিন্তু স্ক্যানারে তার ব্যাগে পয়েন্ট থার্টি টু বোরের একটি পিস্তল এবং ৩৫ রাউন্ড গুলি থাকার বিষয়টি ধরা পড়ে।” বিমানে বৈধ অস্ত্র বহনকরতে হলে আগে থেকে ঘোষণা দেওয়ার নিয়ম থাকলেও মুজিবুর রহমান তা করেননি বলে জানান নূরে আলম। তিনি বলেন, “এ বিষয়ে প্রশ্ন করা সন্তোষজনক কোনো উত্তর তিনি দিতে পারেননি। বরং দাবি করেন, তিনি সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক, এক সময় নাকি সামরিক বাহিনীতে ছিলেন। তিনি নাকি নিজের লাইসেন্স করা ওই অস্ত্র নিয়ে সব সময়ই বিমানে চলাফেরা করেন, কখনোই ঘোষণা দেন না।” নিয়ম লঙ্ঘন করায় এসএম মুজিবুর রহমানকে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানান এভিয়েশন সিকিউরিটির পরিচালক। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি খেলনা পিস্তল নিয়ে শাহজালাল বিমানবন্দর হয়েই উড়োজাহাজে উঠে পলাশ আহমেদ নামে এক যুবক পাইলট-ক্রুদের জিম্মি করেছিলেন, পরে চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে কমান্ডো অভিযানে তিনি মারা পড়েন। ওই ঘটনায় বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে সমালোচনার মধ্যেই মার্চের শুরুতে লাইসেন্স করা পিস্তল নিয়ে শাহজালালের প্রথম ধাপের নিরাপত্তা তল্লাশি পেরিয়ে যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। ওই ঘটনাও দেশব্যাপী আলোচনার জন্ম দেয়। তারপর দুই সপ্তাহ পার না হতেই ১৬ মার্চ বিনা ঘোষণায় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে বিমানবন্দরে ঢুকে গ্রেপ্তার হন প্রবাসী পল্লী গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মুহিদুর রহমানের দেহরক্ষী নুরুল ইসলাম। পরে জামিন নাকচ করে আদালত তাকে কারাগারে পাঠায়।

Share
[related_post themes="flat" id="287383"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com