,
সংবাদ শিরোনাম :
» « নুসরাত হত্যা ॥ বিচার বিভাগীয় তদন্ত চায় টিআইবি» « জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম উদ্বোধন» « মধুতে ভেজাল মিশ্রন ঃ ক্রেতারা সাবধান!» « কোদন্ডায় স্বামীর হাতে স্ত্রী নিহত ॥ স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা॥ ঘাতক স্বামী আটক» « বনবিভাগের অভিযানে অবৈধ জাল বিষের বোতল ও নৌকা আটক।» « আহমদ শরীফকে ৩৫ লাখ টাকা অনুদান দিলেন প্রধানমন্ত্রী» « নিষিদ্ধ করা হল কংগ্রেসের ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ বিজ্ঞাপন, রাহুলকে চিঠি কমিশনের» « তিন কেন্দ্রে দাপাদাপি শাসকদলের, কেন্দ্রীয় বাহিনী কই? বিরোধীদের তোপের মুখে কমিশন» « সড়কে সড়কে থেমে নেই দূর্ঘটনা» « চাম্পাফুল বছরের শুরু থেকে চিংড়ী ঘেরগুলোতে ব্যাপক ভাইরাসের আক্রমন» « যশোরে গাঁজা সহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক

একটি মাত্র নৌকায় খেঁয়া পারাপারে জনভোগান্তি

07 Tala KaiaGat

মামুন রেজা তালা থেকে ॥ কপোতাক্ষ নদের সাতক্ষীরা তালার কানাইদিয়া-কপিলমুনি খেঁয়াঘাটে মানুষ ও পণ্য পারাপারে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। ঘাট ইজারাদার শুকুর আলী ও তার লোকেরা সেখানে একটি মাত্র নৌকা দিয়ে ব্যস্ততম ঘাঁটে মানুষ ও পণ্য পারাপার করছে। শুধু এখানেই শেষ নয়,ঘাঁট ও নৌকা মাঝিকে প্রতিজন সাধারণ মানুষকে ২ টাকা করে ৪ টাকা দিতে হচ্ছে। সাইকেলসহ গুণতে হচ্ছে ৫ টাকা করে দু’খাতে ১০ টাকা,। মটর সাইকেল প্রতি ১০ টাকা করে ২০ টাকা। এছাড়া পণ্যসামগ্রী পারাপারে গুণতে হচ্ছে ভূতুড়ে মাশুল। একদিকে অতিরিক্ত ভাড়া অন্যদিকে একটি মাত্র নৌকায় করে খেঁয়া পারাপারে জনভোগান্তি বর্তমানে চরমে পৌছেছে। বিস্তীর্ণ জনপদের সাধারণ মানুষের ব্যবসা-বাণিজ্য ও শত শত ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতিদিন কপিলমুনি খেঁয়া পার হতে অতিরিক্ত খরচের পাশাপাশি সময় ক্ষেপন হচ্ছে এক প্রকার বাধ্য হয়ে। একটি মাত্র নৌকায় এপার থেকে ও পারে যাত্রী নিয়ে গেলে অপেক্ষা করতে হচ্ছে নৌকা ফিরে আসা পর্যন্ত। ততক্ষণে কারো চাকুরী,কারো ব্যবসা আর ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পৌছাতে প্রতিদিন বিলম্ব হচ্ছে। নদী পার হতে একটি মাত্রঘাট ও কতৃপক্ষ প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে টু-শব্দটি পর্যন্ত করতে সাহস পাচ্ছেননা সাধারণ মানুষ। এমন অভিযোগ জনপদের প্রতিটি সাধারণ মানুষের। এব্যাপারে ঘাট মালিক শুকুর আলীর প্রতিনিধি জনৈক জুলফিকার আলী জানান,তারা ৫ জনের যৌথ মালিকানায় খেঁয়া ঘাট কিনেছেন। এবার ৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকায় ঘাট ক্রয়ের দাবি করে আরো বলেন,নদীর উপর সাকো মেরামত শ্রমিকের দাম থেকে শুরু করে বিভিন্ন খাতে প্রতিদিন ১ হাজার টাকা করে দিতে হচ্ছে। তাই বাধ্য হয়ে তারা অতিরিক্ত ফি আদায় করছেন বলে এ প্রতিনিধিকে জানান। তবে ঘাটে পারাপারে মূল্য তালিকা ঝুলিয়ে রাখার কথা থাকলেও তারা দীর্ঘ দিন যাবৎ ঘাটে কোন চার্ট বা তালিকা না ঝুলিয়ে প্রতিনিয়ত অতিরিক্ত ফি আদায় করে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করে যাচ্ছেন। এমন পরিস্থিতিতে এলাকাবাসী সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরীণ জানান , অবশ্যই ঘাটে পারপারে মূল্য তালিকা টানাতে হবে,তবে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের ব্যাপারটি তার জানা নেই।

Share
[related_post themes="flat" id="287660"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com