,
সংবাদ শিরোনাম :
» « সাতক্ষীরায় তিন দিন ব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল» « ভারতের কাছে পাত্তাই পেল না পাকিস্তান» « সেনাবাহিনীকে সব সময় জনগণের পাশে দাঁড়াতে হবে -প্রধানমন্ত্রী» « ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে জয়ের বিকল্প নেই মাশরাফিদের» « বিশ্ব শিশু মুর্তজা বিশ্ব মানবতার প্রতিকে পরিনত» « কালের বিবর্তনে বিলুপ্তির পথে জাতীয় খেলা কাবাডি» « বাংলাদেশের অর্থনীতিতে কৃষি ও শিল্প» « শ্যামনগরে স্কুল ছাত্রীকে উত্তাক্ত করার প্রতিবাদে চাচাকে পিটিয়ে জখম» « কিংবদন্তি ফুটবলার হাজী খালেক স্বরনে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল আজ» « যশোর র‌্যাবের অভিযানে দেশী মদ সহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক» « মোংলায় র‌্যাবের অভিযানে ৬৫৬ কেজি গাজা সহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক

রাজধানীতে আগুনে পুড়ে হতাহত শোকাহত দেশবাসি

কখনও কখনও কোন কোন দেশে এমন কোন ঘটনা ঘটে যা দেশবাসিকে কাঁদায়, এক কাতারে নিয়ে আসে এবং দেশের জনসাধারনকে শোকাহত করে তোলে, জাতি এবং জাতিস্বত্তাকে শোকে আচ্ছন্ন করে তোলে এবং উক্ত শোকাহত আর কান্না দেশের সিমানা পেরিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও স্পর্শ করে থাকে। রাজধানীতে একের পর এক অগ্নিকান্ড সত্যিকার অর্থে দেশবাসিকে কাঁদিয়ে তুলছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানী ঢাকার বনানীর কামাল আতার্তুক অ্যভিনিউয়ের এফআর টাওয়ারে আগুন লেগে অন্তত পঁচিশজন নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে একজন শ্রীলংকার নাগরিক আছে বলে জানাগেছে। পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত খবরা খবরে জানা গেছে বিদ্যুতের শক সার্কিটের কারনে আগুনের সূত্রপাত। বনানীর এফআর টাওয়ারে আগুন ধরার পূর্বে পুরাতন ঢাকায় ক্যামিকাল গোডাউনে আগুন ধরায় অন্তত: দেড়শতাধিক আদম সন্তানের মৃত্যু হয়। বারবার আগুন ধরা এবং প্রাণহানির ঘটনা কোন অবস্থাতেই কাম্য নয়, বনানী এফআর টাওয়ারের আগুন নিয়ন্ত্রনে ফায়ার সার্ভিস সহ সরকারের একাধিক সংস্থা অতি মানবিক ভাবে কাজ করেছে এবং উদ্ধার তৎপরতাও চালিয়েছে। সেনা, বিমান এবং নৌ বাহিনীর পক্ষ হতেও উদ্ধার তৎপরতা পরিচালনা করা হয়েছে। আগুন ধরার পর প্রাণহানি এবং ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি সামনে রেখে প্রশ্ন উঠেছে সুবিশাল বিল্ডিং করার বিষয়ে পরিবেশ দপ্তরের ছাড়পত্র এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদন বা অনুমতি নেওয়া হয় কিনা, বড় বড় বিল্ডিং গুলোতে নিচে নামবার বিকল্প পথ রাখার বিষয়টি বিশেষ ভাবে আলোচনায় আসছে। আগুনে অগ্নীদগ্ধ হওয়া এবং বিল্ডিং এর উপর থেকে লাফিয়ে পড়ে নিহত এবং আহতদের প্রতি আমাদের সমবেদনা। আগামী দিনগুলোতে সবধরনের বিষয় মাথায় রেখেই বিল্ডিং নির্মান করতে হবে এবং অনুমোদন দিতে হবে।

Share
[related_post themes="flat" id="287670"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com