,
সংবাদ শিরোনাম :
» « দুর্গম এলাকাকে অগ্রাধিকার দিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার উদ্যোগ» « সাতক্ষীরা ডিজিটাল ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের স্বাস্থ্য সেবায় এগিয়ে চলা এবং অত্যাধুনিক মেশিনের উপস্থিতি (এক)» « সাতক্ষীরার ফিংড়ী কুঁচে চাষ প্রকল্প উদ্বোধন করলেন এমপি রবি» « জোড়া সেঞ্চুরিতে সেমির আগে ভারতের বড় জয়» « তেলবাহী ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে কলেজ প্রভাষিকা নিহত: আহত-১, গ্রেফতার-২» « শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের পৌর আট নং ওয়ার্ড কমিটি গঠন» « কাকবাসিয়ায় খেয়াঘাট না থাকায় পারাপারে ভোগান্তি» « চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী» « যশোর র‌্যাবের পৃথক অভিযানে ২২৮ পিচ ইয়াবা সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক» « সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজ আইডিজি এর জন্য মনোনীত» « বাজার ব্যবস্থা অস্থিতিশীল এবং মসলা বাজারে আগুন

তালা উপজেলার পশ্চিম খেশরায় ৪ থেকে ৫টি পানের বরজ আগুনে পুড়ে ছাই

03 Kasra Pan Agun

খেশরা প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরার তালা উপজেলার খেশরা ইউনিয়নের পশ্চিম খেশরায় গত মধ্যেরাতে (১০-০৫-১৯) কে বা কারা ৪ থেকে ৫টি বরজে আগুন লাগিয়ে দেয় বলে পানচাষিরা জানান। ঘনাস্থলে যেয়ে দেখা যায় আগুন লাগান ফলে বরজগুলো আগুনে পুড়ে ছয়লাব হয়ে গেছে। এতে ক্ষতির পরিমান ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকার অধিক হবে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত পানচাষিরা। কয়েকটি বরজের জমি পাশাপাশি থাকায় একটি বরপে আগুন লাগার ফলে আগুন অতি দ্রুততার সাথে ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, সব মিলে ৪৮ থেকে ৫০ পোনের বরজ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত পানচাষী মোঃ ইনতাজ মোড়ল জানায় আশপাশের কোন বৈদ্যুতিক সংযোগ নেই আবার আমার সাথে গ্রামে তেমন কোন শক্রতাও নেই। কে বা কারা এমন কাজ করলো আমি বুঝতে পারছিনা। অনেকদিন পান না কাটার ফলে অনেক পান জমা হয়ে পড়েছিল। সমস্ত পান আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে আমার ১ থেকে ২ লক্ষ টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ আরেক পানচাষী মোঃ রবিউল মোড়ল জানান, আমার ১৫ থেকে ২০ পোনের পানের জমিতে প্রায় সবটুকুই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এখন আমি নিঃস্ব হয়ে গেছি। ক্ষতিগ্রস্থ আরো কয়েক পানচাষী গোবিন্দ মালোসহ অনেকেই বলেন, আমাদের সমস্থ পান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বরজের ‘ল’ শোলা সমস্তকিছু জ্বলে ছাই হয়ে গেছে। তবে এলাকাবাসী জানায়, আশপাশে কয়েকটি মোটর থাকার ফলে আগুন ৫ থেকে ৬ ঘন্টার প্রচেষ্টায় কিছুটা কমতে থাকলেও সবটুকু আগুন নিভাতে সকাল হয়ে যায়। সর্বোপরি গরীব পান চাষীরা সবটুকু হারিয়ে তারা এখন নিঃস্ব, অসহায়ের মতো চেয়ে আছে উধ্বতন মহলের সুদৃষ্টির দিকে। এমতাবস্থায় কিছুটা সহযোগিতা, সহমর্মিতা একান্ত প্রয়োজন বলে জানায় তারা। তবে এ ব্যাপারে খেশরা পুলিশ ক্যাম্প পরিদর্শকের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আমরা এখনো কোন অভিযোগ পাইনি, পেলে জরুরি ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

Share
[related_post themes="flat" id="290752"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com