,
সংবাদ শিরোনাম :
» « চীনকে নিয়ে মিয়ানমারের সঙ্গে ব্সছে বাংলাদেশ» « পরিচ্ছন্ন সাতক্ষীরা গড়ে তুলার লক্ষ্যে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত» « ঝাউডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এমপি রবিকে সংবর্ধনা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত» « কাউন্সিলে বড় পরিবর্তন আসছে আওয়ামী লীগে» « ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী» « পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেখেয়ালীতে ভাঙ্গছে কৈখালীর সীমান্ত ওয়াবদার বেড়ী বাঁধ» « দুনিয়া কাঁপানো মুসলিম আবিষ্কারক ॥ ইবনে সিনা» « কয়রায় র‌্যাবের অভিযানে গাঁজা সহ আটক এক» « বিশ্ব বাজারে বাংলাদেশের পণ্য এবং আমাদের অর্থনীতি» « সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ময়না আটক» « যশোরে র‌্যাবের অভিযানে চোলাই মদ সহ আটক এক

রোগের নাম লুপাস এফ

এসএস স্বাস্থ্য: লুপাস রোগটির আরেক নাম সিস্টেমিক লুপাস ইরাথেমেটাস বা এসএলই। এটি একটি অটোইমিউন ডিজিজ, মানে ইমিউন সিস্টেম নিজের শরীরের বিরুদ্ধে কাজ করে। লুপাস মূলত কম বয়সী মেয়েদের রোগ। ১৫ থেকে ৪৪ বছর বয়সী মেয়েরাই বেশি আক্রান্ত হয়। শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ ও কোষ আক্রান্ত হয় বলে এই রোগের লক্ষণ বিচিত্র। নানামুখী উপসর্গের কারণে রোগনির্ণয়ে প্রায়ই বিলম্ব ঘটে। জনসচেতনতা বাড়ানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের লুপাস ফাউন্ডেশন সম্প্রতি একটি সহজ চেকলিস্ট তৈরি করেছে, যা রোগ লক্ষণের সঙ্গে মিলিয়ে নিয়ে সাধারণ মানুষও সতর্ক হতে পারেন। নিচের লক্ষণগুলো দীর্ঘ মেয়াদে বা একত্রে বেশ কয়েকটি উপস্থিত থাকলে আপনার লুপাস হয়েছে বলে সন্দেহ করতে পারেন। ত্বক সূর্যালোকের প্রতি সংবেদনশীল ত্বক, লাল চাকা নাক থেকে গালে দুই পাশে প্রজাপতির পাখার মতো র‌্যাশ অতিরিক্ত চুল পড়া সন্ধি ও পেশি তিন মাসের বেশি সময় ধরে একাধিক অস্থি সন্ধিতে ব্যথা বা ফোলা কারণ ছাড়া ক্লান্তি ও দুর্বলতা মস্তিষ্ক ও স্নায়ু খিঁচুনি, অস্বাভাবিক আচরণ, যা এক ঘণ্টার বেশি স্থায়ী হয় দীর্ঘমেয়াদি জ¦র, যার কারণ খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না হৃৎপিন্ড ও ফুসফুস বুকে ব্যথা, যা দীর্ঘ শ্বাস নিলে বাড়ে নাক কান গলা মুখের তালুতে দীর্ঘমেয়াদি ঘা রক্ত ও রক্তপরিবহন তন্ত্র রক্তশূন্যতা, রক্তে শ্বেতকণিকা বা অণুচক্রিকার অভাব ঠান্ডায় আঙুলের রং পরিবর্তন (প্রথমে সাদা, তারপর নীল, শেষে লাল) প্র¯্রাব লাল হওয়া, ফেনাযুক্ত হওয়া বা প্র¯্রাবে আমিষ যেতে থাকা মুখ চোখ পা ফুলে যাওয়া লুপাস ছোঁয়াচে নয়, বংশগত রোগও নয়। এ রোগের কোনো নিরাময় নেই, তবে সঠিক সময়ে রোগ নির্ণয় করে চিকিৎসা করলে নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। চিকিৎসা না করলে মৃত্যুঝুঁকি আছে। সংবেদনশীল ত্বক থাকলে রোদে বেশি যাওয়া যাবে না, সানব্লক (এসপিএফ ৩০) লাগাতে হবে। লুপাস রোগী বিয়ে করতে পারবেন, সন্তানও নিতে পারবেন। তবে বিশেষ সতর্কতা জরুরি। জন্মনিয়ন্ত্রণের জন্য কনডম তাঁদের জন্য সবচেয়ে ভালো, জন্মবিরতিকরণ পিল অনেক সময় ঝুঁকিপূর্ণ। তবে রোগের তীব্রতা কম হলে, কিডনি জটিলতা ও রক্ত জমাট বাঁধার ঝুঁকি না থাকলে স্বল্পমাত্রার বড়ি খাওয়া যায়।

Share
[related_post themes="flat" id="290973"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com