,
সংবাদ শিরোনাম :
» « জাল নোট কারবারিদের নিয়ন্ত্রণে নানা উদ্যোগ» « সাতক্ষীরা শহরের প্রাণকেন্দ্রে পাইকারি লিছুর হাট : রাতেই ব্যবসায়ীদের শহরে আগমন» « সাতক্ষীরায় সরকারী কর্মকর্তা ও গণ্যমান্য ব্যক্তির সম্মানে এমপি রবির ইফতার মাহফিল» « দেবহাটায় তথ্য অধিকার বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত» « খুলনায় ডিবি পুলিশের পৃথক অভিযানে অস্ত্র, গুলি মাদক সহ দুই আসামী আটক» « মুক্তিযোদ্ধা আলেম ওলামা ও এতিমদের সম্মানে প্রধানমন্ত্রীর ইফতার» « মধুমাস জ্যৈষ্ঠ এবং বাস্তবতা» « বিশ্বের সবচেয়ে পুরনো মসজিদ ॥ গ্রেট মস্ক অব আলেপ্পো (সিরিয়া ৭১৫ সাল)» « কার দখলে দিল্লি? মোদী, রাহুল না অন্য কেউ?» « কলারোয়ায় ছাত্রলীগ নেতার আঙুল কেটে নেওয়ায় ঘটনায় থানায় মামলা ॥ উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত» « নুরনগরে দীর্ঘদিনের চলাচলের পথ বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ

ফিলিস্তিনি ভূখন্ডে ১০ বছরে ২০ হাজার অবৈধ বসতি স্থাপন ইসরায়েলের

এফএনএস আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফিলিস্তিনি ভূখন্ডে গত ১০ বছরে প্রায় ২০ হাজার অবৈধ ইহুদি বসতি স্থাপন করেছে ইসরায়েল। ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর মেয়াদকালে এসব অবৈধ স্থাপনা তৈরি হয়েছে। অবৈধ বসতি স্থাপনবিরোধী পর্যবেক্ষক সংস্থা পিস নাউ-এর বার্ষিক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এমন তথ্য। গতকাল বুধবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে মিডল ইস্ট মনিটর। প্রতিবেদনে বলা হয়, শুধু ২০১৮ সালেই ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে দুই হাজার ১০০ নতুন অবৈধ ইহুদি বসতি নির্মাণ শুরু হয়। এর আগে ২০০৯ সাল পর্যন্ত বছরে গড় এক হাজার ৯৩৫টি অবৈধ বসতি নির্মাণ করা হতো। ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর ইসরায়েলের অবৈধ ইহুদি বসতি স্থাপন প্রক্রিয়ার গতি বেড়েছে। পিস নাউ বলছে, আগের যে কোনও সময়ের চেয়ে বর্তমান মার্কিন প্রশাসন সবচেয়ে বেশি ইসরায়েলবান্ধব। ফিলিস্তিনিদের নিজেদের ভূমি থেকে উচ্ছেদ করে ১৯৪৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ইহুদি রাষ্ট্র ইসরায়েল। ১৯৬৭ সালের আরব যুদ্ধের পর থেকে ইসরায়েল পূর্ব জেরুজালেম দখল করে রেখেছে। ফিলিস্তিনিরা চায় পশ্চিম তীরে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে এবং পূর্ব জেরুজালেমকে এর রাজধানী বানাতে। পূর্ব জেরুজালেমকে নিজেদের অবিভাজ্য রাজধানী বলে দাবি করে থাকে ইসরায়েল। অবশ্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ইসরায়েলের দখলদারিত্বকে স্বীকৃতি দেয় না। পশ্চিম তীর ও পূর্ব জেরুজালেমে অবৈধভাবে নির্মিত ১০০টিরও বেশি বসতিতে প্রায় সাড়ে ৬ লাখ ইসরায়েলি বসবাস করে। এই দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনি জনতার প্রতিরোধকে সন্ত্রাসবাদ আখ্যা দিয়ে আসছে ইসরায়েল। পশ্চিম তীরের বাইরে গাজা উপত্যকা ও জেরুজালেমেও বাড়ছে অবৈধ বসতি নির্মাণ। সেখানকার স্থানীয় আরবদের ভবন তৈরির অনুমতি না দিলেও অবৈধ বসতি স্থাপনকারীদের ক্ষেত্রে সেটা প্রযোজ্য হয় না। ফলে সেখানেও বাড়ছে দখলদারদের সংখ্যা। পিস নাউ জানিয়েছে, ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়ার দেড় বছরের মধ্যে পশ্চিম তীরে ১৪ হাজার ৪৫৪টি অবৈধ বসতির অনুমোদন দিয়েছে ইসরায়েল। সূত্র: মিডল ইস্ট মনিটর, রয়টার্স।

Share
[related_post themes="flat" id="291138"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com