,
সংবাদ শিরোনাম :

শ্রীলংকার সামনে ক্ষুধার্ত বাংলাদেশ

image-41947-1560176579

এফএনএস স্পোর্টস: শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেও পরবর্তীতে টানা দু’ম্যাচ হারতে হয়েছে বাংলাদেশকে। নিজেদের লক্ষ্যের পথে বড় ধরনের ধাক্কা খেয়েছে টাইগারা। যে কারণে ম্যাচ জয়ের জন্য ব্যাকুল হয়ে উঠেছে মাশরাফির দল। আগামীকাল দ্বাদশ বিশ্বকাপে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচ খেলতে নামবে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ শ্রীলংকার বিপক্ষে জয় ছাড়া অন্য কিছুই ভাবছে না সাকিব-মুশফিকরা। সেমিফাইনালে খেলার লক্ষ্যের পথে ভালোভাবে টিকে থাকতে হলে এ ম্যাচে জিততেই হবে ক্ষুর্ধাত বাংলাদেশকে। বিস্ট্রলের কাউন্টি গ্রাউন্ডে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ম্যাচটি। সেমিফাইনালে খেলার লক্ষ্য নিয়ে এবারের বিশ্বকাপে যাত্রা শুরু করে বাংলাদেশ। কেনিংটন ওভালে শক্তিশলী দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২১ রানে হারিয়ে দেয় টাইগাররা। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে জয়ের স্বাদ নিয়ে পরের ম্যাচে একই ভেন্যুতে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। দুর্দান্ত লড়াই করেও শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি হারতে হয় মাশরাফির দলকে। ২ উইকেটের হারে টুর্নামেন্টে প্রথম ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। এরপর নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কার্ডিফের পয়মন্ত ভেন্যুতে খেলতে নামে বাংলাদেশ। ইংলিশদের মুখোমুখি হবার আগে কার্ডিফে দু’টি ম্যাচ খেলে শতভাগ জয় পেয়েছিলো টাইগাররা। এ ছাড়া বিশ্বকাপের মঞ্চে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দু’বার খেলে দু’টিতেই জয়ের রেকর্ড ছিলো বাংলাদেশের। তাই ম্যাচ জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসীই ছিলো টাইগাররা। কিন্তু মাঠে বল গড়ানোর পর থেকেই আক্রমনাত্মক ক্রিকেট খেলতে থাকে ইংল্যান্ড। ওপেনার জেসন রয়ের ১২১ বলে ১৫৩ রানের বিধ্বংসী ইনিংসে ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ৩৮৬ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় ইংল্যান্ড। ৩৮৭ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ব্যাট হাতে একাই লড়াই করেন বাংলাদেশের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ১১৯ বলে ১২১ রান ঝকমকে ইনিংসও খেলেন তিনি। কিন্তু অন্য কোন ব্যাটসম্যানই হাফ-সেঞ্চুরিও করতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত ২৮০ রানে অলআউট হয়ে টানা দুই ম্যাচ হারের লজ্জা পায় বাংলাদেশ। ১০৬ রানের বড় ব্যবধানে ইংল্যান্ডের কাছে হারে টাইগাররা। তাই তিন খেলায় ১টি জয় ও ২টি হারে ২ পয়েন্ট সংগ্রহে রাখতে পেরেছে বাংলাদেশ। এতে সেমিফাইনালে খেলার লক্ষ্যের পথ ঝাপসা হতে শুরু করে। সেমিতে খেলতে হলে পরের ৬ ম্যাচ থেকে অন্তত ৪টি জয় লাগবেই বাংলাদেশের। তাই শ্রীলংকার বিপক্ষে পরের ম্যাচে জয় ছাড়া অন্য কিছুই ভাবার চেষ্টাও করছে না মাশরাফির দল। মূল কথা হচ্ছে পরাজিত হওয়া দুই ম্যাচেও লড়াই করেছে টাইগাররা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে মিক্সড জোনে বাংলাদেশের স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ শ্রীলংকার বিপক্ষে জয়ের লক্ষ্যের কথাই জানান, ‘শ্রীলংকার বিপক্ষে জয় পাওয়াটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে গেছে আমাদের জন্য। টুর্নামেন্টে ভালোভাবে টিকে থাকতে হলে পরের ম্যাচে আমাদের জিততেই হবে। সামনের ম্যাচ নিয়ে ম্যানেজমেন্ট পরিকল্পনা করবে, কিভাবে আরও ভালো করা যায়।’ তবে শ্রীলংকার সাথে বৃষ্টিও ভাবাচ্ছে বাংলাদেশকে। কারণ গতকাল সারাদিনই ব্রিস্টলে অবিরাম বৃষ্টি হয়েছে। তবে আজ সকাল থেকে সূর্যের হাসি দেখা যাচ্ছে ব্রিস্টলে। তাই এমন আবহাওয়া থাকলে সূর্যের নীচেই অনুশীলন করার সুযোগ পাবে বাংলাদেশ। যা গেল দু’ম্যাচের আগে পারেনি টাইগাররা। ওভাল ও কার্ডিফের বৃষ্টি ভেস্তে দিয়েছিলো বাংলাদেশের অনুশীলন। তাই শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচে আগে খোলা আকাশের নীচে অনুশীলনের জন্য অস্থির হয়ে উঠেছেন মাশরাফি-তামিমরা। এমনকি শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচ খেলতে ও জয়ের জন্য উদগ্রীব হয়ে আছে বাংলাদেশ দল। কারণ এ ম্যাচ থেকেই পূর্ণ ২ পয়েন্টই চাইছে তারা। বৃষ্টি কিংবা হার বাংলাদেশকে আরও পিছিয়ে দিবে। তবে ম্যাচের দিনও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে ব্রিস্টলে। সেক্ষেত্রে ম্যাচের গতিপথ কি হবে তা এখনই বলা মুশকিল। তবে যাই হোক না কেন, ব্রিস্টলে বাংলাদেশের সুখস্মৃতি রয়েছে। এই ভেন্যুতে একটি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ, সেটিই জিতেছে তারা। ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার অলরাউন্ড নৈপুন্যে ইংল্যান্ডকে ৫ রানে হারিয়েছিলো টাইগাররা। ঐ জয়ে সিরিজের সমতা আনে টাইগাররা। তবে তৃতীয় ম্যাচ হেরে সিরিজ খুইয়েছিলো বাংলাদেশ। তারপরও ঐ জয় বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে এতে কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু প্রতিপক্ষ শ্রীলংকার বিপক্ষে বাংলাদেশের রেকর্ড মোটেও ভালো নয়। ৪৫ দেখায় মাত্র ৭টিতে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। অবশ্য সর্বশেষ মুখোমুখিতে জয় আছে বাংলাদেশের। গেল বছরের সেপ্টেম্বরে দুবাইয়ে এশিয়া কাপের ‘বি’ গ্র“পের ম্যাচে শ্রীলংকাকে পাত্তাই দেয়নি বাংলাদেশ। ১৩৭ রানের বিশাল জয় তুলে নেয় টাইগাররা। উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিমের ১৫০ বলে ১৪৪ রানের উপর ভর করে ৪৯ দশমিক ৩ বলে ২৬১ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। এরপর বাংলাদেশ বোলারদের ধারালো বোলিং-এর সামনে কুপোকাত হয়ে পড়ে শ্রীলংকার ব্যাটসম্যানরা। মাত্র ১২৪ রানেই গুটিয়ে যায় লংকানরা। তাই ব্রিস্টলের মাটিতে একটি দুর্দান্ত জয়ের স্মৃতি ও শ্রীলংকার বিপক্ষে সর্বশেষ দেখায় বড় জয় কালকের ম্যাচে সাফল্য পেতে এগিয়েই রাখবে বাংলাদেশকে। বাংলাদেশের মত এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপে ৩টি ম্যাচ খেলেছে শ্রীলংকাও। টাইগারদের চেয়ে এক পয়েন্ট বেশি সংগ্রহে রয়েছে তাদের। কারণ শ্রীলংকার ১টি করে ম্যাচ জয়-হার-পরিত্যক্ত হয়েছে। তাই ৩ পয়েন্ট সংগ্রহে রয়েছে লংকানদের। নিউজিল্যান্ডের কাছে ১০ উইকেটে হার দিয়ে এবারের আসরে যাত্রা শুরু করে শ্রীলংকা। এরপর বৃষ্টি আইনে আফগানিস্তানকে ৩৪ রানে হারায় লংকানরা। তবে পাকিস্তানের বিপক্ষে তাদের তৃতীয় ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়ে যায়। ঐ ম্যাচটি এই ব্রিস্টলেই ছিলো। সিংহদের জন্য বড় দু:সংবাদ হচ্ছে আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় পাওয়া ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় নুয়ান প্রদীপ ইনজুরির কারণে কাল খেরতে পারছেন না। বাংলাদেশ দল : মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদুল্লাহ, মেহেদি হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, মোসাদ্দেক হোসেন, আবু জায়েদ রাহি, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান। শ্রীলংকা দল : দিমুথ করুনারতেœ (অধিনায়ক), ধনানঞ্জয়া ডি সিলভা, আবিস্কা ফার্নান্দো, সুরাঙ্গা লাকমল, লাসিথ মালিঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ, কুশল মেন্ডিস, জীবন মেন্ডিস, কুশল পেরেরা, থিসারা পেরেরা, মিলিন্দা সিরিবর্ধনে, লাহিরু থিরিমান্নে, ইসরু উদানা ও জেফরি বান্দারসে।

Share
[related_post themes="flat" id="293370"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com