,
সংবাদ শিরোনাম :

মাছসহ চোর আটক শালিস বৈঠকে জরিমানা

মথুরেশপুর (কালিগঞ্জ) প্রতিনিধি ॥ কালিগঞ্জের মথুরেশপুর ইউপি সদস্য নূরুসসালাম গাইনের মৎস্য ঘের থেকে রাতের আঁধারে বাগদা চিংড়ি চুরির সময় হাতেনাতে আব্দুল হামিদ টাপালী নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। রবিবার দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার ছোট বিলে ইউপি সদস্যের ঘেরে এই চুরির ঘটনা ঘটে। সে উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামের আনছার টাপালীর ছেলে। স্হানীয় এলাকাবাসি জানান, হামিদ একজন পেশাদার চোর। দীর্ঘদিন যাবৎ রাতের অন্ধকারে সে এলাকার ঘের থেকে মাছ চুরি করে থাকে। সেই সুবাদে সুযোগ বুঝে রবিবার দিবাগত রাতে স্হানীয় ইউপি সদস্য নূরুসসালাম গাইনের ঘেরে মাছ চুরির সময় হাতে নাতে ধরা পড়ে। এসময় চোরের কাছে থাকা লোহার রড দিয়ে মেম্বারকে সজোরে আঘাতের চেষ্টা করে দৌড়ে পালিয়ে যায় সে। বিষয়টি সকালে জানাজানি হলে এলাকাবাসি চোরকে আটকের জন্য বাড়িতে গেলে হঠাৎ তাদের উপর ক্ষিপ্ত হয় চোর পরিবারের সদস্যরা। এমনকি কয়েকজনকে মারপিট করে তারা। পরে ঐ দিন হামিদকে হাজির করে ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান গাইনের নেতৃত্বে বসন্তপুর বটতোলা নামক স্হানে শালিস বসে। শালিসে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে মেম্বারের ঘের থেকে মাছ চুরির ঘটনা স্বীকার করে হামিদ। এসময় মাতব্বাররা হামিদকে পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন মথুরেশপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান গাইন, ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি মহাব্বত আলী, সাবেক ইউপি সদস্য শেখ রহমত আলী, শেখ গোলাম মাসুম বাটুলসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। চুরির অভিযোগের বিষয় হামিদের নিকট মুটোফোনে জানতে চাইলে সে ফোন রিসিভ না করে ছেলের সাথে কথা হলে সে বলেন, আমার মা অসুস্হ্য। তবে পরিবারের অন্য এক সদস্য চুরির ঘটনা শিকার করে বলেন, মান সম্মান যা ছিল সব শেষ, কপালে যা লেখা ছিল তাই হয়েছে। এ ব্যাপারে মথুরেশপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান গাইনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, শালিস বৈঠকে উপস্হিত সকলের সম্মুখে হামিদ মাছ চুরির দ্বায় স্বীকার করেছে এবং তাকে জরিমানাও করা হয়েছে।

Share
[related_post themes="flat" id="293413"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com