,
সংবাদ শিরোনাম :
» « দুর্গম এলাকাকে অগ্রাধিকার দিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার উদ্যোগ» « সাতক্ষীরা ডিজিটাল ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের স্বাস্থ্য সেবায় এগিয়ে চলা এবং অত্যাধুনিক মেশিনের উপস্থিতি (এক)» « সাতক্ষীরার ফিংড়ী কুঁচে চাষ প্রকল্প উদ্বোধন করলেন এমপি রবি» « জোড়া সেঞ্চুরিতে সেমির আগে ভারতের বড় জয়» « তেলবাহী ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে কলেজ প্রভাষিকা নিহত: আহত-১, গ্রেফতার-২» « শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের পৌর আট নং ওয়ার্ড কমিটি গঠন» « কাকবাসিয়ায় খেয়াঘাট না থাকায় পারাপারে ভোগান্তি» « চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী» « যশোর র‌্যাবের পৃথক অভিযানে ২২৮ পিচ ইয়াবা সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক» « সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজ আইডিজি এর জন্য মনোনীত» « বাজার ব্যবস্থা অস্থিতিশীল এবং মসলা বাজারে আগুন

তালার জাতপুরে রমরমা মাদক ব্যবসা : পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা

তালা প্রতিনিধি ॥ তালা উপজেলার জাতপুর বাজার সহ আশপাশের কয়েকটি গ্রামে মাদক ব্যবসা রমরমা হয়ে উঠেছে। একটি প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় মাদক ব্যবসায়ীরা এখানে ইয়াবা, ফেন্সিডিল ও গাজার ব্যবসা চালিয়ে যাচ্চে। জাতপুর বাজারে নাম সর্বস্ব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে মাদক ব্যবসায়ীরা ব্যবসার আড়ালে চালিয়ে যাচ্ছে মাদক ব্যবসা। মাদক বিকিকিনিতে বাঁধা দিলেই শান্তিপ্রিয় মানুষ নানাবিধ হয়রানী সহ হামলা ও মামলার শিকার হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানান, যশোরের কেশবপুর, খুলনার ডুমুরিয়া ও পাইকগাছা উপজেলার নিকটবর্তীতের অবিস্থত তালার জাতপুর বাজার। এছাড়া সীমান্ত জেলা সাতক্ষীরা থেকেও জাতপুর বাজার নিকটবর্তী এবং এখানে যাতায়াতের জন্য একাধিক থানা ও জেলা সদরের সাথে রয়েছে একাধিক সড়কপথ। যেকারনে মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে জাতপুর বাজার নিরাপদ স্থান হওয়ায় এখানকার একাধিক স্থানে গড়ে উঠেছে মাদক বিকিকিনির স্পট! ফলে, জাতপুর বাজার সংলগ্ন কয়েকটি গ্রামের মাদক ব্যবসায়ীরা বাহিরের মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে সখ্যতা গড়ে এই বাজার থেকে ইয়াবা, ফেন্সিডিল ও গাজা অন্যত্র সরবারহ করছে । নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাজার সংলগ্ন বসবাসকারী এক মহিলা বলেন, মাদক ব্যবসা চালিয়ে এলাকার অনেকেই মুহুর্তের মধ্যে লক্ষ লক্ষ টাকার মালিক হয়ে উঠেছে। তারা বাজারে নাম মাত্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে মূলত সেখানে বসে জাতপুর বাজার সহ আশপাশের এলাকায় মাদক বেচাকেনার চুক্তি করে। এটা জানার পরও তালা থানা পুলিশ কোনও ব্যবস্থা না নেয়ায় মাদক ব্যবসায়ী বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। এই সকল মাদক ব্যবসায়ীরা স্থানীয় একটি রাজনৈতিক মহল এবং উপজেলা পর্যায়ের প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতা ও জনপ্রতিনিধিদের শেল্টারে থেকে অবৈধ টাকার জোরে এলাকার শান্তিপ্রিয় মানুষের উপর প্রভাব বিস্তার করে যাচ্ছে। এলাকার জমি জোর দখল, পরিবারের মধ্যে বিরোধ বাধিয়ে দেয়া, বিভিন্ন ব্যক্তিকের মামলায় জড়িয়ে দেয়া, মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ কারীদের উপর হামলা ও হুমকি প্রদান সহ নানাবিধ অপকর্ম করে যাচ্ছে। এই সকল মাদক ব্যবসায়ী ও তাদের গড ফাদারদের মধ্যে কেহ সাজা প্রাপ্ত আসামী আবার কারো বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপরাধের একাধিক মামলা বিচারাধিন রয়েছে। ওই মহিলা জানান, সম্প্রতি জাতপুর বাজারের এক মাদক ব্যবসায়ী অবৈধ ক্ষমতা ও টাকার জোরে অন্যের জমি জোর দখলের পরিকল্পনা করে। বিষয়টি জানতে পেরে জাতপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এস.আই শাহিদুর রহমান জোর দখল ঠেকানোর জন্য ঘটনাস্থলে গেলে প্রকাশ্যে ওই মাদক ব্যবসায়ী এস.আই শাহিদুরকে অপদাস্থ সহ লাঞ্জিত করে এবং তাকে দেখে নেবার হুমকি দেয়। একপর্যায়ে এস.আই শাহিদুর রহমান ঘটনাস্থল থেকে চলে যেতে বাধ্য হয়। চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী কর্তৃক চৌকোস পুলিশ অফিসার লাঞ্জিত হওয়া, এলাকায় রমরমা মাদক ব্যবসা চালানো, মাদক ব্যবসায়ীদের আস্ফালন এবং তাদের হামলা ও হুমকির কারনে এলাকার সাধারন মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। তারা অবিলম্বে মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে জোরালো অভিযান চালানোর জন্য সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার সহ উর্দ্ধতন পুলিশ প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এব্যপারে তালা থানার ওসি মো. মেহেদী রাসেল বলেন, মাদক ব্যবসায়ীদের আটক এবং মাদক উদ্ধারের জন্য জাতপুর সহ আশপাশের এলাকায় নিয়োমিত অভিযান চালানো অব্যাহত আছে। ইতোমধ্যে আমরা উক্ত এলাকা থেকে দফায় দফায় ইয়াবা, ফেন্সিডিল ও গাজা উদ্ধার সহ একাধিক মাদক ব্যবসায়ীদের আটক করেছি। বাকিদের আটকের জন্য অভিযান অব্যাহ থাকবে। তবে, তালা থানার ওসির এমন আশাবাদী বক্তব্যে জাতপুর এলাকার সাধারন মানুষ ও অভিভাবকরা আস্থা রাখতে পারছেননা। তাদের অভিযোগ, মাদক ব্যবসায়ীরা প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় মাদক বিকিকিনি করে। আর যারা মাদক বিকিকিনির সাথে জড়িত তারা প্রতিনিয়ত থানায় যাতায়াত করে এবং পুলিশের সাথে তাদের ব্যপক সখ্যতা রয়েছে। থানা পুলিশ মাঝে মাঝে মাদক বিরোধি অভিযান চালিয়ে মাদক উদ্ধারসহ মাদক সেবী ও বিক্রেতাদের আটক করলেও প্রধান মাদক ব্যবসায়ীরা সহ তাদের গড ফাদাররা থাকছে ধরা ছোয়ার বাইরে। যেকারনে এলাকা থেকে নির্মূল হচ্ছেনা মাদক বিকিকিনি। এমতাবস্থায় থানা পুলিশের উপর থেকে আস্থা উঠে যাওয়ায় মাদক বিরোধি অভিযান জোরদার, মাদক ব্যবসায়ী ও সেবীদের আটকের জন্য উর্দ্ধতন পুলিশ প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করে একাধিক যুবককে ফেসবুকে স্ট্যাটাস লিখতে দেখা গেছে। বি. এম. বাবলুর রহমান নামের এক আইনজীবী সহকারী তার ফেসবুক পেজে ক্ষোভ প্রকাশ করে মাদকের বিরুদ্ধে এমনই এক স্ট্যাটাস দেন। আবার এই স্ট্যাটাসের কারনে হামলা ও হুমকির শিকার হতে পারে বলেও সেখানে সে আশংকা ব্যক্ত করেন।

Share
[related_post themes="flat" id="295515"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com