,
সংবাদ শিরোনাম :
» « মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে সাক্ষীর হাজির নিশ্চিত করার উদ্যোগ» « দুই ক্রীড়া ব্যক্তিত্বকে জেলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান» « সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে বিটিভি’র তিন কর্মকর্তার মতবিনিময়» « পদ্মপুকুর ইউনিয়নে জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির মতবিনিময়» « শীত মৌসুমেও সবজির মূল্যের পাগলা ঘোড়া ছুটছেই» « প্রবীণ হিতৈষী সংঘ’র বার্ষিক সাধারণ সভা» « মুজিববর্ষ উদযাপনে শ্রমিক লীগের বর্ধিত সভা» « বিশ্ববাজারে ও বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জনে বাংলাদেশের কৃষি» « সুন্দরবন প্রেস ক্লাবের ব্যানার ও দরজা ভাঙচুরের ঘটনায় থানায় অভিযোগ» « পানিতে ঢাকা পর্যটন শহর ॥ অস্ট্রেলিয়ার রাস্তায় কুমির» « সাংবাদিক আবুল কালামের পিতার ইন্তেকাল

জি সেভেন সম্মেলনে কাশ্মির ইস্যু তুলবেন ট্রাম্প-ম্যাক্রোঁ

এফএনএস বিদেশ : ফ্রান্সে অনুষ্ঠিতব্য জি সেভেন সম্মেলনে কাশ্মির ইস্যু তোলার ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনার কথাও জানিয়েছেন তিনি। এদিকে ফ্রান্সের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এ সম্মেলনের সাইডলাইনে মোদির সঙ্গে বৈঠকে কাশ্মির ইস্যু নিয়ে কথা বলবেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।আগামী ২৪ থেকে ২৬ আগস্ট ফ্রান্সের বিয়ারিৎসে ৪৫ তম জি সেভেন সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এতে যোগদানের উদ্দেশে আগামি বৃহস্পতিবার ফ্রান্স যাচ্ছেন মোদি। সেখানে দৃশ্যত বাণিজ্য সংক্রান্ত বিষয়াদির পাশাপাশি কাশ্মির পরিস্থিতি নিয়ে পশ্চিমাদের উদ্বেগ দূর করার চেষ্টা করবেন তিনি। তবে এর মধ্যেই কাশ্মির ইস্যুতে ফের মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত মঙ্গলবার এনবিসি নিউজ-এর সঙ্গে আলাপকালে নিজের এমন অভিপ্রায়ের কথা পুনর্ব্যক্ত করেন তিনি।মাসখানেক আগে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে পাশে বসিয়ে কাশ্মির ইস্যুতে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছিলেন ট্রাম্প। তখন তার ওই প্রস্তাব নিয়ে ভারতে ব্যাপক নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়।২০১৯ সালের ৫ আগস্ট ভারত অধিকৃত কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন বাতিল করে অঞ্চলটিকে দুই টুকরো করে দেয় দিল্লি। ওই দিন সকাল থেকে কার্যত অচলাবস্থার মধ্যে নিমজ্জিত হয় দুনিয়ার ভূস্বর্গ খ্যাত কাশ্মির উপত্যকা। ফোনে ট্রাম্পকে সামগ্রিক পরিস্থিতি জানান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি-ও একই ইস্যুতে ট্রাম্পকে ফোন করে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নালিশ জানান। দুই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনালাপের পর সোমবার টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে তিনি কাশ্মিরের বর্তমান অবস্থাকে ‘একটি কঠিন পরিস্থিতি’ হিসেবে উল্লেখ করেন। পরদিন মঙ্গলবার এনবিসি নিউজ-এর সঙ্গে আলাপকালে অঞ্চলটির বিদ্যমান অবস্থাকে ‘উত্তেজনাপূর্ণ’ পরিস্থিতি হিসেবে উল্লেখ করেন ট্রাম্প।মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, কাশ্মির খুব জটিল একটি জায়গা। তবে সেখানকার পরিস্থিতি শান্ত করার প্রচেষ্টায় যুক্ত হতে পেতে তিনি খুশি এবং এ ইস্যুতে তিনি সাহায্য করবেন।ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সহজ সম্পর্ক তৈরি না হওয়ার কারণ হিসেবে তিনি বলেছেন, এর জন্য দায়ী ধর্ম। হোয়াইট হাউজে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, ‘কাশ্মির খুবই জটিল একটি জায়গা। সেখানে হিন্দুও রয়েছে এবং মুসলিমও রয়েছে। আমি বলতে পারি না যে, তারা একসঙ্গে ভালো রয়েছে।’ট্রাম্প বলেন, ‘মধ্যস্থতা করতে আমি যতটুকু সম্ভব করবো। আপনারা দুটি দেশ, দীর্ঘসময় ধরে একসঙ্গে এবং ঘনিষ্ঠভাবে থাকতে পারছেন না, এটা খুবই বিস্ফোরক পরিস্থিতি।’ট্রাম্পের ভাষায়, ‘দুই দেশের মধ্যে প্রচন্ড রকম সমস্যা রয়েছে। মধ্যস্থতা করতে আমি যতটা পারি করবো অথবা কিছু তো করবো।’ সূত্র: এনবিসি নিউজ, সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট, এনডিটিভি।

Share
[related_post themes="flat" id="297209"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com