,
সংবাদ শিরোনাম :
» « অভিযোগ পাল্টা অভিযোগে ঢাকা সিটি নির্বাচন সর-গরম» « ভাড়–খালি মা. বিদ্যালয়ে নবীন বরণ ও বিদায় অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোস্তফা কামাল ॥ নোট বাদ দিয়ে মেধার বিকাশ ঘটাতে হবে» « সাতক্ষীরায় নানা আয়োজনে ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা স্যার ফজলে আবেদের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত» « সাতক্ষীরা কালেক্টরেট সহকারি সমিতির দাবি আদায়ের লক্ষে কর্মবিরতি পালন» « রসুলপুর যুব সমিতির উদ্যোগে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সংবর্ধণা প্রদান» « সাতক্ষীরায় পানিতে ডুবে এক শিশুর করুন মৃত্যু» « পাটকেলঘাটায় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে প্রাণ গেল মাহেন্দ্র চালকের» « করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর» « চীনে করোনাভাইরাসে মৃত ৮১ জন» « পারুলিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের বিদায় অনুষ্ঠানে মুনছুর আহমেদ» « ১৬ দলীয় নাইট মিনি ক্রিকেট টুর্ণামেন্টের ফাইনালে ॥ কাটাবুনিয়া স্পোর্টিং ক্লাব চ্যাম্পিয়ন

কাউন্সিলে নেতা-কর্মীরা যাকেই নেতা বানাবে তাঁকে মেনে নেব -জি এম কাদের

এফএনএস: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, আগামী ৩০ নভেম্বর জাতীয় পার্টির কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। কাউন্সিলে নেতা-কর্মীরা যাকেই নেতা বানাবে আমি তাঁকে মেনে নেব। গতকাল শনিবার জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে এসব কথা বলেন জি এম কাদের। এর আগে জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর)-এর প্রেসিডিয়াম সদস্য এয়ার আহমদ সেলিম তাঁর হাতে ফুল দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। জি এম কাদের বলেন, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম ও সংসদ সদস্যদের যৌথ সভায় সর্বসম্মতিক্রমে জাতীয় কাউন্সিলের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। কাউন্সিলে দলের নেতাকর্মীরাই জাতীয় পার্টির আগামি দিনের নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন। নেতাকর্মীদের সিদ্ধান্তই আমি মেনে নেব। তিনি বলেন, পদ-পদবি বা ব্যক্তিগত সম্পদ অর্জনের জন্য আমি রাজনীতি করি না। দেশ, দেশের মানুষ ও জাতীয় পার্টির জন্য আমাদের রাজনীতি। কোনো লোভ-লালসার জন্য আমাদের রাজনীতি নয়। এ সময় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের আরো বলেন, জাতীয় পার্টি বাংলাদেশের বড় তিনটি রাজনৈতিক দলের অন্যতম। জাতীয় পার্টির দেশ পরিচালনায় অভিজ্ঞতা ও ঐতিহ্য রয়েছে। দেশের রাজনৈতিক শূন্যতায় দেশের মানুষ এখন জাতীয় পার্টির দিকে তাকিয়ে আছে। দেশের নতুন প্রজন্মের সামনে রাজনীতি করার অন্যতম প্লাটফর্ম হচ্ছে জাতীয় পার্টি। তাই এখনই দলকে আরো শক্তিশালী করতে পারলে আগামি দিনের রাজনীতিতে এবং দেশ পরিচালনার প্রতিযোগিতায় জাতীয় পার্টি আরো এগিয়ে যাবে। তিনি বলেন, সারা দেশে দলকে আরো শক্তিশালী করতে আট বিভাগে আটটি সাংগঠনিক টিম করা হয়েছে এবং সাংগঠনিক টিমের পরার্মশ অনুযায়ী দলকে আরো বেগবান করা হবে। জি এম কাদের বলেন, জাতীয় পার্টি পার্টির গঠনতন্ত্র এবং প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নির্দেশনায় চলছে। জাতীয় পার্টিতে বিভেদের অবকাশ নেই। বিভ্রান্তির কোনো সুযোগ নেই জাতীয় পার্টিতে। বিশৃঙ্খলার সুযোগ জাতীয় পার্টিতে থাকবে না। সঠিক পথে ও সুশৃঙ্খলভাবে জাতীয় পার্টি বাংলাদেশের রাজনীতিতে এগিয়ে যাবে। সভাপতির বক্তৃতায় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, জাতীয় পার্টির ওপরে বারবার আঘাত এসেছে। নানা ষড়যন্ত্রের মধ্য দিয়েই জাতীয় পার্টি এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, গঠনতন্ত্রের ২০/১/ক ধারা মোতাবেক পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ তাঁর অবর্তমানে গোলাম মোহাম্মদ কাদেরকে পার্টির চেয়ারম্যান নির্বাচন করেছেন। এটা গঠনতন্ত্র মোতাবেকই হয়েছে। তিনি বলেন, বেগম রওশন এরশাদ আমাদের মায়ের মতো, তিনি আমাদের অভিভাবক। আমরা বিশ্বাস করি কিছু মানুষের পরামর্শে বেগম রওশন এরশাদকে বিভ্রান্ত করা যাবে না। বেগম রওশন এরশাদ অবশ্যই অনুধাবন করবেন এবং জাতীয় পার্টির এগিয়ে চলার রাজনীতিতে আমাদের অভিভাবক হয়েই থাকবেন।

Share
[related_post themes="flat" id="297442"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com