,
সংবাদ শিরোনাম :
» « এবার লবণ নিয়ে গুজব ॥ পর্যাপ্ত লবণ আছে, অতিরিক্ত দরে বিক্রি করলে জেল জরিমানা- প্রেস কনফারেন্সে জেলা প্রশাসক মোস্তফা কামাল» « নতুন পরিবহন আইন সংশোধনের দাবিতে সাতক্ষীরা সবরুটে বাস চলাচল বন্ধ ॥ যাত্রী সাধারনের দূর্ভোগ চরমে» « বাইপাস সড়কে দূর্ঘটনায় ভ্যান চালকের মৃত্যু» « সাতক্ষীরায় বিজিবির অভিযানে ইলিশ মাছ সহ আটক এক» « সদরে দূর্ণীতি প্রতিরোধে কর্মক্ষেত্রে শ্রদ্ধাচার চর্চা বিষয়ক মত বিনিময় সভা» « কালিগঞ্জ জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে যুবক কে এসিড নিক্ষেপ» « শ্যামনগরে পাকহানাদার মুক্ত দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত» « দুইদিন ব্যাপী আয়কর মেলায় শুভ উদ্বোধন করলেন এমপি জগলুল হায়দার» « দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী» « সুন্দরবনে অবৈধ ফাইবার জাল ১টি ডিঙ্গি নৌকা সহ ৪ জন আটক» « লবণ বিষয়ে গুজব ॥ রাতে বাজার পরিদর্শন করলেন দেবহাটা নির্বাহী অফিসার

মৎস্য ঘেরে মাছ চাষের পাশাপাশি ভেঁড়িবাঁধে সবজি চাষ করে স্বাবলম্বী মেম্বার ফেদাউজ মোড়ল

07 Kaligonj Gar Mash

মাসুদ পারভেজ, কালিগঞ্জ থেকেঃ কালিগঞ্জ উপজেলা সদর থেকে ৫ কিলোমিটার দূরে লতায়-পাতায়, সবুজে-শ্যামলে ঘেরা গ্রামটির নাম পানিয়া। গ্রামের চারপাশে শুধু মৎস্য ঘের আর মৎস্য ঘের। ‘মাছে-ভাতে বাঙালি’ এই সত্যটা টের পাওয়া যায় এই গ্রামে আসলে। মৎস্য চাষে বিপ্লব ঘটিয়েছেন এই গ্রামের নারী-পুরুষ। শুধু তাই নয়, ব্যক্তিগত উদ্যোগে মৎস্য ঘের পাড়ে সবজি চাষ শুরু করেছেন গ্রামের অধিকাংশ বেকার যুবক। ইতিমধ্যেই ঘেরে মাছ আর পাড়ে সবজি চাষ করে উপজেলা পর্যায়ে সেরা মৎস্য ও সবজি চাষি হিসাবে পুরস্কৃত হয়েছেন এদেরই একজন ফেদাউজ মোড়ল। জানা গেছে, ফেরদাউজ মোড়লসহ এই গ্রামের প্রায় ৮০ শতাংশ মানুষ মৎস্য চাষের সঙ্গে জড়িত। বিভিন্ন ফসল উৎপাদন করে লাভবান না হওয়ায় এই গ্রামের লোকজন মৎস্য চাষে ঝুঁকে পড়েছেন। সাফল্যও পেয়েছেন তারা। গ্রামের আমিষের চাহিদা মিটিয়ে সন্তানদের লেখাপড়ার খরচ চালিয়ে সচ্ছলতা ও মর্যাদার জীবন-যাপন করছেন। সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলার মৌতলা ইউনিয়নের পানিয়া গ্রামের পূর্ব দিকের গ্রাম সংলগ্ন বিলের অধিকাংশ জমির মৎস্য ঘের গুলোতে নানা জাতের মাছ চাষ করা হচ্ছে। মাছের মধ্যে রয়েছে, পাঙ্গাস, রুই, কাতলা, মোনসেক্স, তেলাপিয়া, গ্রাসকার্প, পাবদা ইত্যাদি। মাছের লাফালাফি ঘেরের পানিতে ঢেউ তুলছে। এ মনোরম দৃশ্য দেখে মন আনন্দে ভরে ওঠে। জানা গেল, মৎস্য চাষি ফেরদাউজ মোড়ল মাছ চাষ করেই থেমে থাকেননি। স্থানীয় কৃষি অফিসের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আঃ সুবাহানের পরামর্শে ৬টি পুকুরের ১০-১৫ ফুট চওড়া পাড়ের প্রায় ২৫০ বিঘা জমিতে হাইব্রিড জাতের সবজি চাষ করেছেন। সবজির মধ্যে রয়েছে পেঁপে, ঢেঁড়স, বেগুন, মরিচ, লাউ, চাল-কুমড়া, মিষ্টি-কুমড়া, লাল শাক, পুঁই শাক ইত্যাদি। পুকুর পাড়ে দৃষ্টিনন্দন করে সারিবদ্ধভাবে সাড়ে ৫শ’ পেঁপে, ৪ হাজার ঢেঁড়স, ৪শ’ মিষ্টি কুমড়া ও ৪ হাজার মরিচের গাছ রয়েছে। এসব সবজি পরিবারের চাহিদা মিটিয়ে বাজারে বিক্রি করে অর্থ উপার্জন করা সম্ভব হচ্ছে। এ ব্যাপারে মাছচাষি ফেদাউজ মোড়ল জানান, প্রথমে নিজ উদ্যোগে প্রায় বিঘা প্রতি ৫০ হাজার টাকা করে মোট ২৫ বিঘা জমিতে ১ কোটি ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা ব্যয় করে মৎস্য ঘের কেটে মাছ চাষের পাশাপাশি সবজি চাষ করেছি। এখন প্রায় আমার এই বিলে ২৫০ বিঘা জমিতে মাছ চাষের পাশাপাশি সবজি চাষ করেছি। মৎস্য ঘেরের পাড়ে কেন সবজি চাষ করলেন এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ঘেরের পাড়ে সবজি চাষ করায় পাড় আগাছামুক্ত রাখার পাশাপাশি পুষ্টির চাহিদা পূরণ হচ্ছে। এছাড়া বিভিন্ন গাছের শিকড়ের কারণে পুকুরের পাড় ভেঙে পড়ে না। তিনি মনে করেন, মৎস্য চাষিদের প্রত্যেকের মৎস্য ঘেরের পাড়ে জমি ফেলে না রেখে ফল-মূল ও সবজি চাষ করা দরকার। এ ব্যাপারে সরকারি অনুদান বা সহযোগিতারও প্রয়োজন রয়েছে বলে তিনি জানান।

Share
[related_post themes="flat" id="299907"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com