,
সংবাদ শিরোনাম :
» « এবার লবণ নিয়ে গুজব ॥ পর্যাপ্ত লবণ আছে, অতিরিক্ত দরে বিক্রি করলে জেল জরিমানা- প্রেস কনফারেন্সে জেলা প্রশাসক মোস্তফা কামাল» « নতুন পরিবহন আইন সংশোধনের দাবিতে সাতক্ষীরা সবরুটে বাস চলাচল বন্ধ ॥ যাত্রী সাধারনের দূর্ভোগ চরমে» « বাইপাস সড়কে দূর্ঘটনায় ভ্যান চালকের মৃত্যু» « সাতক্ষীরায় বিজিবির অভিযানে ইলিশ মাছ সহ আটক এক» « সদরে দূর্ণীতি প্রতিরোধে কর্মক্ষেত্রে শ্রদ্ধাচার চর্চা বিষয়ক মত বিনিময় সভা» « কালিগঞ্জ জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে যুবক কে এসিড নিক্ষেপ» « শ্যামনগরে পাকহানাদার মুক্ত দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত» « দুইদিন ব্যাপী আয়কর মেলায় শুভ উদ্বোধন করলেন এমপি জগলুল হায়দার» « দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী» « সুন্দরবনে অবৈধ ফাইবার জাল ১টি ডিঙ্গি নৌকা সহ ৪ জন আটক» « লবণ বিষয়ে গুজব ॥ রাতে বাজার পরিদর্শন করলেন দেবহাটা নির্বাহী অফিসার

মার্কিন একাধিপত্যবাদের বিরোধিতা করার মূল্য দিচ্ছে ইরান

এফএনএস বিদেশ : জাতিসংঘে নিযুক্ত ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের উপ-রাষ্ট্রদূত ইসহাক আল-হাবিবি বলেছেন, মার্কিন সা¤্রাজ্যবাদ ও আধিপত্যবাদের বিরোধিতা করার কারণে তার দেশকে চড়া মূল্য দিতে হচ্ছে। মার্কিন একাধিপত্যবাদ সারা বিশ্বের নিরাপত্তার জন্য ভয়াবহ হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। কিউবার ওপর মার্কিন সরকারের অর্থনৈতিক অবরোধের বিষয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে বক্তৃতা করতে গিয়ে ইরানি কূটনীতিক বৃহস্পতিবার এই মন্তব্য করেন। ভাষণে ইসহাক আল-হাবিবি বলেন ১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামি বিপ্লব সফল হওয়ার পর আমেরিকা ইরানের ওপরেও একইভাবে নিষেধাজ্ঞা আরাপ করেছে। তিনি বলেন, গত চার দশক ধরে আমেরিকা একতরফাভাবে ইরানের বিরুদ্ধে জবরদস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছে এবং সেটি দিন দিন বেড়েছে। ইসহাক-আল-হাবিবি বলেন, অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা হচ্ছে আমেরিকার হস্তক্ষেপমূলক এবং অদূরদর্শী নীতির প্রমাণ। নকিউবার বিরুদ্ধে আমেরিকা যে একতরফাভাবে অবরোধ আরোপ করেছে তার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ভোটাভুটি হয়। এতে বিশ্বের ১৮৭টি দেশ অবরোধের বিপক্ষে এবং মাত্র তিনটি দেশ পক্ষে ভোট দিয়েছে। আমেরিকার এই অর্থনৈতিক অবরোধের বিরুদ্ধে টানা ২৮ বছরের মতো সাধারণ পরিষদে প্রস্তাব পাস হলো। ইসহাক আল-হাবিবি বলেন, মার্কিন অর্থনৈতিক অবরোধ শুধুমাত্র আন্তর্জাতিক শান্তি ও উন্নয়নকে ক্ষতিগ্রস্ত করে না বরং স্বাভাবিক শান্তি-শৃঙ্খলাও বাধাগ্রস্ত করছে অথচ এগুলো হচ্ছে টেকসই উন্নয়নের জন্য জরুরি। ১৯৬১ সালের কিউবার সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করার পরপরই আমেরিকা দেশটির বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করে। এ সম্পর্কে ইসহাক আল-হাবিবি বলেন, একটি দেশের বিরুদ্ধে ৬০ বছরের অর্থনৈতিক অবরোধ অনেক বড় কঠিন শাস্তি। তিনি বলেন, বাস্তবতা হচ্ছে- ইরান এবং কিউবা আমেরিকার উপনিবেশবাদী নীতিকে প্রতিরোধ করতে গিয়ে অনেক বড় মূল্য দিচ্ছে।

Share
[related_post themes="flat" id="302064"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com