,
সংবাদ শিরোনাম :
» « ১০ হাজার ৭৮৯ রাজাকারের তালিকা প্রকাশ» « আজ মহান বিজয় দিবস» « সশস্ত্র বাহিনীকে সুদক্ষে পরিণত করার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার -প্রধানমন্ত্রী» « বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি ঐচ্ছিক তহবিল হতে অনুদানের চেক বিতরন» « সকল মানুষের জন্য নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে ॥ সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সেমিনারে বক্তারা» « শ্যামনগর উপজেলা আ”লীগের পক্ষ থেকে জেলা শাখার নবনির্বাচিত সভাপতি সম্পাদককে ফুলেল শুভেচ্ছা» « সামজকে মাদক মুক্ত করতে হলে যুবসমাজকে খেলাধূলায় আকৃষ্ট করতে হবে -কলারোয়ায় এমপি লুৎফুল্লাহ» « গাজীপুরে ফ্যান কারখানায় দগ্ধ হয়ে ১০ জনের মৃত্যু» « মাগুরায় ৪ শহীদ মুক্তিযোদ্ধার মাজার জিয়ারত» « আশাশুনি উপজেলা আ’লীগের পুনঃনির্বাচিত সভাপতি ॥ উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকিমকে ফুলেল শুভেচ্ছা» « ২শ পিস ইয়াবা সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

অযোধ্যার বাবরি মসজিদ মামলার রায় আজ

এফএনএস : দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে বাবরি মসজিদ-রাম জন্মভূমি নিয়ে করা ঐতিহাসিক অযোধ্যা মামলার রায় শনিবার ঘোষণা করতে চলেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় রায় ঘোষণার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। গত ১৬ অক্টোবর সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বাধীন ৫ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চে অযোধ্যা জমি বিতর্কের শুনানি শেষ হয়। তবে সে সময় কোনও রায় ঘোষণা করেনি আদালত। আগামী ১৭ নভেম্বর অবসর গ্রহণ করবেন রঞ্জন গগৈ। তার আগেই মামলার রায় হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছিল। এর মধ্যেই স্পর্শকাতর এ মামলার রায় দেওয়ার প্রস্তুতিতে প্রশাসনিক মহলে নানা পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। প্রধান বিচারপতি গগৈ শুক্রবার রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য উত্তরপ্রদেশের মুখ্যসচিব এবং পুলিশ প্রধানের সঙ্গে বৈঠকও করেছেন। এর মধ্যেই এদিন রাতে গগৈ অন্য চার বিচারকের সঙ্গে আলোচনা করে অযোধ্যা মামলায় রায় ঘোষণার ওই দিনক্ষণ স্থির করেছেন। রায়ের পর যাতে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি না হয় সেজন্য ভারতের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। সব রাজ্যে সতর্কতা জারি করতে বলা হয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে। উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ গতরাতেই লাখেনৌতে শীর্ষ প্রশাসনিক ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে বৈঠক করেছেন। জরুরি পরিস্থিতি মোকবেলায় লাখ্নৌতে দুটি এবং অযোধ্যায় একটি হেলিকপ্টারও প্রস্তুত রাখতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। অযোধ্যার আশপাশের গ্রামগুলোতে উড়তে শুরু করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের বিশেষ ড্রোন। ৩০টি বম্ব স্কোয়াড চলে গিয়েছে আরো আগেই। অযোধ্যার অধিকাংশ এলাকায় ডিসেম্বরের শেষ পর্যন্ত জারি রাখা হবে ১৪৪ ধারাও। কয়েক দশক ধরে আদালতে বিচারাধীন থেকে রাজনৈতিকভাবে স্পর্শকাতর হয়ে আছে এ অযোধ্যা মামলা। ২ দশমিক ৭৭ একর জমি নিয়ে এ দ্বন্দ্ব। হিন্দু ও মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ই এ জমির দাবিদার। এই রাম মন্দির ও বাবরি মসজিদের বিষয়টি ছিল ১৯৮০’র দশকের অন্যতম রাজনৈতিক ইস্যু। ষোড়শ শতকে নির্মিত মসজিদটি ১৯৯২ সালে গুঁড়িয়ে দেয় উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা। ভগবান রামচন্দ্রের জন্মভূমিতে এই মসজিদ তৈরি করা হয়েছে বলেই তাদের বিশ্বাস। মসজিদটি ভাঙা নিয়ে হিন্দু-মুসলিম সহিংসতায় ভারতজুড়ে তিন হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছিল। চলতি বছরের শুরুতে মধ্যস্থতার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের চেষ্টায় ভারতের সুপ্রিম কোর্ট এর জন্য একটি কমিটি গঠন করলেও সে চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ায় পরে আগস্ট থেকে অযোধ্যা মামলার নিয়মিত শুনানি শুরু হয়।

Share
[related_post themes="flat" id="302169"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com