,
সংবাদ শিরোনাম :
» « বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উদযাপনে সাতক্ষীরায় সম্প্রীতি সংলাপ ॥ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি মানুষের ঘরে ঘরে» « সাতক্ষীরা পুলিশের বিভিন্ন শাখা পরিদর্শন ও কল্যান সভায় ডিআইজি ডঃ মহিদ উদ্দীন» « সাতক্ষীরা সরকারী কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয় ও সিটি কলেজ জাতীয়করন করা হবে ইনশাল্লাহ-এমপি রবি» « সাতক্ষীরায় শিল্পকলা একাডেমির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও বসন্ত উৎসব পালন» « যশোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দু’জন নিহত ॥ আহত ২০ শিক্ষার্থী» « খুলনায় জনবান্ধব ভূমিসেবা ব্যবস্থাপনা বিষয়ে সেমিনার» « প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাক্ষাৎ» « কাদাকাটি টু কাটাখালী সড়কের দুরাবস্থা ॥ দূর করার আকুতি এলাকাবাসীর» « পানিতে ঢাকা পর্যটন শহর ॥ ডুবে আছে রূপের নগরী ভেনিস» « স্ত্রীকে অপহরনে বাধা দেওয়ায় স্বামীকে কুপিয়ে জখম» « প্রতাপনগরের কুটির শিল্প ঐতিহ্য ॥ হরিনের সিং তৈরি মুর্তি মাথা ও মহিষের সিং’র ছড়ি লাঠি বিলুপ্তির পথে

জন্ম তিথি উৎসবে বক্তারা ॥ বিবেকানন্দ’র দর্শন আমাদের আলোকিত পথ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ‘বহুরুপে সম্মুখে তোমার, ছাড়ি কোথা খুঁজিছ ঈশ^র, জীবে প্রেম করে যেই জন সেই জন সেবিছে ঈশ^র’ এই অমরবানীকে সামনে রেখে সাতক্ষীরায় পালিত হলো স্বামী বিবেকানন্দর ১৫৭ তম জন্ম তিথি উৎসব। এই উৎসবে অংশ নিয়ে আলোচকরা বলেছেন বিবেকানন্দর দর্শন আদর্শ আমাদের হৃদয়ে ধারন করতে হবে। তার পথ আলোকিত পথ হিসাবে আমাদের পাথেয় হয়ে থাকবে। তিনি ধর্মে কোনো বিভেদ দেখেননি। তিনি মানুষে মানুষে ভেদাভেদ দেখেন নি। তিনি বলেছেন বিবাদ নয়, সহায়তা, বিনাশ নয়, পরস্পরের ভাবগ্রহন, মত বিরোধ নয় সমস্বয় ও শান্তি। স্বামী বিবেকানন্দ ভারতবর্ষ দখলকারী বৃটিশ শে^তাঙ্গদের বিতাড়নের মন্ত্র দিয়েছিলেন।শুক্রবার পুরাতন সাতক্ষীরা মায়ের বাড়ি নাট মন্দির মিলনায়তনে বিবেকানন্দ শিক্ষা ও সংস্কৃতি পরিষদ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর বাসুদেব বসু। বিবেকানন্দ পরিষদের সভাপতি অমিত হালদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মন্দির সমিতির সভাপতি বিশ^নাথ ঘোষ, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সুভাষ চৌধুরী, পূজা উদযাপন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সুভাষ চন্দ্র ঘোষ, জয় মহা প্রভু সেবক সংঘ সভাপতি গোষ্ঠ বিহারী মন্ডল,মন্দির সমিতির সেক্রেটারি রঘুজিত গুহ, বিবেকানন্দ পরিষদের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট অনিত মুখার্জি, উপদেষ্টা প্রাণকৃষ্ণ সরকার, উপদেষ্টা ¯িœগ্ধা নাথ, সহকারি শিক্ষক নয়ন কুমার সানা, বিবেকানন্দ গবেষক মানিক চন্দ্র ঘোষ প্রমূখ। এর আগে বিবেকানন্দ পরিষদ সেক্রেটারি বিশ^রূপ ঘোষের পরিচালনায় বিশেষ প্রার্থনা সভা, সম্প্রীতি শোভাযাত্রা ও মঙ্গল প্রদীপ জ¦ালিয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষনা করা হয়। আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তারা বলেন এক সময়ের তেজোদীপ্ত াসীম মেধাসম্পন্ন কর্মদক্ষ নরেন্দ্র নাথ দত্ত শ্রী রামকৃষ্ণের শিষ্যত্ব গ্রহন করে মাত্র ২৩ বছর বয়সে ১৮৮৬ সালে সন্ন্যাসব্রত লাভ করে স্বামী বিবেকানন্দ নাম ধারণ করেন। এর পর মাত্র ১৬ বছরের জীবদ্দশায় তিনি সনাতন ধর্ম প্রচার করেছেন বিশ^ব্যাপী। অনাহার ও স্বল্পাহারকে নিত্যসঙ্গী করে তিনি সারা ভারতবর্ষ পায়ে হেঁটে ভ্রমণ করেছেন। মাত্র ৩৯ বছর বয়সে এই ক্ষণজন্মা মনিষী দেহত্যাগ করে রেখে গেছেন অমর বানী। স্বামী বিবেকানন্দ ব্রম্মদৈত্যের সন্ধানে গাছের মগডালে চড়েছেন। তিনি বলেছেন ওঠো জাগো,লক্ষ্যে না পৌছনো পর্যন্ত থেমো না। তিনি ধারন করেছেন ঈশ^র প্রেম, দেশ প্রেম ও মানবপ্রেম। তিনি তরুন যুবদের শরীরচর্চার ওপর সমধিক গুরুত্ব দিয়ে বলেছেন বি অ্যান্ড মেক। অর্থাৎ নিজেকে গঠন করো, অন্যকে গঠনে সাহায্য করো। নিজেকে যোগ্য করার বাণী দিয়েছেন তিনি। প্রধান অতিথি প্রফেসর বাসুদেব বসু বলেন আজকের যুব সম্প্রদায়কে বিবেকানন্দ পাঠ করতে হবে। তার বাণী ধারণ করে ছড়িয়ে দিতে হবে। সবার উপরে মানুষ সত্য এই বাণীকে প্রচার করতে হবে। বিশেষ অতিথি মন্দির সমিতির সভাপতি বিশ^নাথ ঘোষ বলেন বিবেকানন্দর পথ হোক আমাদের সবার পথ। তার দর্শন আমাদের দর্শন। নতুন নতুন প্রজন্মকে এই শিক্ষা নিতে হবে। বিশেষ অতিথি সাংবাদিক সুভাষ চৌধুরী বলেন বিবেকানন্দর বাণী ত্যাগ ও সেবার ব্রত নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। মানুষে মানুষে কোনো ভেদাভেদ নয় এমন দর্শন বাস্তবায়ন করতে হবে।

Share
[related_post themes="flat" id="305988"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com