,
সংবাদ শিরোনাম :
» « বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মদিন আজ: মুজিব বর্ষের শুরু» « জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন» « ঝাউডাঙ্গা কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভা» « ইতিহাসের গতি পাল্টে দেওয়া যত ভাষণ ॥ এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, ১৯৭১» « শ্যামনগর সরকারি মহসীন ডিগ্রী কলেজের নতুন ভবনের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করলেন সংসদ সদস্য জগলুল হায়দার» « কলারোয়ার ক্ষেতমুজুরদের সাথে সাংসদ মুস্তফা লুৎফুল্লাহ’র মতবিনিময়» « কালিগঞ্জে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ॥ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সন্তানদের উদ্যোগে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ» « থানা পরিদর্শনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইলতুৎ মিশ» « মুজিববর্ষ উপলক্ষে জেলা প্রাথঃ শিক্ষা অফিসারের মহানুভবতার দেওয়াল উদ্বোধন» « অগ্নিঝরা মার্চ» « আজ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী ঃ আমাদের শ্রদ্ধাঞ্জলী

প্রতাপনগরের কুটির শিল্প ঐতিহ্য ॥ হরিনের সিং তৈরি মুর্তি মাথা ও মহিষের সিং’র ছড়ি লাঠি বিলুপ্তির পথে

মাসুম, প্রতাপনগর (আশাশুনি) থেকে ॥ প্রতাপনগরের একমাত্র কুটির শিল্প ঐতিহ্য পুর্ন হরিনের সিং এর তৈরি মুর্তি মাথা ও মহিষের সিং দিয়ে তৈরি ছড়ি লাঠি আজ প্রায় বিলুপ্তির পথে। তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়, লাঠি ছড়ি তৈরি কারিগর মনোজ কুমার সোম বলেন আমার জানা মতে আমাদের এ কুঠির শিল্পটি দীর্ঘ আট পুরুষ পূর্বে থেকে এ শিল্পটির ঐতিহ্য ধরে রেখেছি। কিন্তু চাহিদা মতো কাঁচা মালের অভাবে এ শিল্পটি ধরে রাখতে চরম হিমশিম খাচ্ছি আমরা। সঠিক মূল্যে এটা বিক্রি করাও অসম্ভব। প্রকৃত পক্ষে সুশীল সমাজে এটার কদর ও মান অনেক উর্ধ্বে বিরাজমান আছে দীর্ঘ কাল থেকে। দেশের সর্বোচ্চ কর্ণধররা এটির ব্যবহারে আবাসস্থল সহ বিভিন্ন ডিপার্টমেন্ট সাদৃশ্য রেখে এটির গ্রহনযোগ্যতার বহিঃপ্রকাশ ঘটান। অথচ একটি লাঠি ছড়ি তৈরির প্রকৃত দিনমজুর খরচ অনুপাতে সঠিক মূল্যে বিক্রয় করতে পারেন না বলে জানান কারিগরবৃন্দ। লাঠি ছড়ি তৈরির জন্য মহিষের সিং, লাঠির ভিতরে তামার সিক তার, ডিজাইনের জন্য দু-আড়াই ইঞ্চি পর পর প্লাস্টিকের সাদা, কালো, সবুজ, লাল রঙের গোলাকার বিত্ত দিয়ে তৈরি করা হয় এ লাঠি ছড়িটি। এটা তৈরির জন্য মহিষের সিং ও আনুষঙ্গিক কাঁচামাল দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আমদানি করা হলেও প্রচলিত আইনি জটিলতা থাকায় বর্তমানে হরিণের সিং পাওয়া যায় না। যার কারণে দৃষ্টি নন্দন হরিণের সিং দিয়ে তৈরি মুর্তি মাথা বানানো সম্ভব হয়না। তবে কোন ব্যক্তি হরিনের সিং এনে দিলে তাঁকেই কেবল ঐ সিং দিয়েই অবিকল হরিনের মাথা ও ছড়ী লাঠি তৈরি করে দিতে পারেন। দৃষ্টি আকর্ষণ করা হরিনের মাথা তৈরির জন্য দুইটা মারবেল গুলি, এক খন্ড কাঠের টুকরা, সাদা এক টুকরা প্লাস্টিক, জিভের জন্য এক টুকরা লাল প্লাস্টিক সন্নিবেশিত করে দৃষ্টি নন্দন করে বাজারজাত করা হয়। উল্লেখ্য একটি ছড়ি লাঠি তৈরি করতে সময় শ্রম অনুপাতে সঠিক মূল্য না পাওয়ায় অনেক কুঠির শিল্প কারিগর তাদের বংশীয় ঐতিহ্য ছেড়ে অন্য পেশায় নিয়োজিত হয়েছে। অবস্থাদৃষ্টে দেখে মনে হয় আগামী প্রজন্ম তাদের এ হস্ত কুঠির শিল্প ধরে রাখতে সম্ভব হবে না।

Share
[related_post themes="flat" id="309832"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com