,
সংবাদ শিরোনাম :
» « বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মদিন আজ: মুজিব বর্ষের শুরু» « জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন» « ঝাউডাঙ্গা কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভা» « ইতিহাসের গতি পাল্টে দেওয়া যত ভাষণ ॥ এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, ১৯৭১» « শ্যামনগর সরকারি মহসীন ডিগ্রী কলেজের নতুন ভবনের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করলেন সংসদ সদস্য জগলুল হায়দার» « কলারোয়ার ক্ষেতমুজুরদের সাথে সাংসদ মুস্তফা লুৎফুল্লাহ’র মতবিনিময়» « কালিগঞ্জে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ॥ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সন্তানদের উদ্যোগে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ» « থানা পরিদর্শনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইলতুৎ মিশ» « মুজিববর্ষ উপলক্ষে জেলা প্রাথঃ শিক্ষা অফিসারের মহানুভবতার দেওয়াল উদ্বোধন» « অগ্নিঝরা মার্চ» « আজ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী ঃ আমাদের শ্রদ্ধাঞ্জলী

সব পর্যায়ে বাড়লো বিদ্যুতের দাম

এফএনএস: পাইকারি, খুচরা ও সঞ্চালন- তিন ক্ষেত্রেই বিদ্যুতের দাম আরেক দফা বাড়িয়েছে সরকার। সাধারণ গ্রাহক পর্যায়ে (খুচরা) প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম গড়ে ৩৬ পয়সা বা ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। প্রতি ইউনিটের দাম ৬ টাকা ৭৭ পয়সা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৭ টাকা ১৩ পয়সা। পাইকারিতে বিদ্যুতের দাম প্রতি ইউনিট গড়ে ৪০ পয়সা বা ৮ দশমিক ৪ শতাংশ বেড়েছে। ৪ টাকা ৭৭ পয়সা থেকে বেড়ে প্রতি ইউনিটের দাম হয়েছে ৫ টাকা ১৭ পয়সা। এছাড়া বিদ্যুৎ সঞ্চালন মূল্যহার বা হুইলিং চার্জ প্রতি ইউনিটে শূন্য দশমিক ২৭৮৭ টাকা থেকে ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বাড়িয়ে করা হয়েছে শূন্য দশমিক ২৯৩৪ টাকা। গতকাল বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে মূল্য বৃদ্ধির এই ঘোষণা দিয়ে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) চেয়ারম্যান মো. আবদুল জলিল বলেন, মার্চ থেকে এ দাম কার্যকর হবে। সর্বশেষ ২০১৭ সালের নভেম্বরে পাইকারি বিদ্যুতের দাম গড়ে ৩৫ পয়সা বা ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বাড়ায় সরকার, যা ওই বছর ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হয়। গত বছরের জুনের শেষে গ্যাসের দাম বাড়ানোর দুই মাসের মাথায় িিব্যুতের দাম আরেক দফা বাড়ানোর জন্য বিইআরসিতে প্রস্তাব পাঠাতে শুরু করে বিতরণ কোম্পানিগুলো। এসব প্রস্তাবের ওপর গত ২৮ নভেম্বর শুরু হয় গণশুনানি। ততে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি) পাইকারিতে ইউনিট প্রতি বিদ্যুতের দাম ২৩ দশমিক ২৭ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব দেয়। তাছাড়া বিতরণকারী বা খুচরা বিক্রেতা কোম্পানিগুলোর মধ্যে ডেসকো, ডিপিডিসি, ওজোপাডিকো ও নেসকো দাম বাড়ানোর আবেদন করে। যুক্তি হিসেবে পরিচালন ও জনবল বাবদ ব্যয় বৃদ্ধি এবং আধুনিক প্রযুক্তি স্থাপন ও সরঞ্জামের মূল্য বৃদ্ধির কথা বলা হয় কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে। তবে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (বিআরইবি) পক্ষ থেকে বলা হয়, পাইকারিতে দাম না বাড়লে তাদের দাম বাড়ানোর প্রয়োজন হবে না। নিয়ম অনুযায়ী গণশুনানির ৯০ দিনের মধ্যেই সিদ্ধান্ত জানাতে হয় বিইআরসিকে। ৯০ দিন পূর্ণ হওয়া এক সপ্তাহ আগেই দাম বৃদ্ধির ঘোষণা এল।

Share
[related_post themes="flat" id="310601"]

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ॥ জিএম নুর ইসলাম, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, যশোর রোড, সাতক্ষীরা, ফোন ও ফ্যাক্স ॥ ০৪৭১-৬৩০৮০, ০৪৭১-৬৩১১৮
নিউজ ডেস্ক ॥ ০৪৭১-৬৪৩৯১, বিজ্ঞাপন ॥ ০১৫৫৮৫৫২৮৫০ ই-মেইল ॥ driste4391@yahoo.com