1. admin@dainikdrishtipat.com : admin :
  2. driste4391@yahoo.com : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ০৯:৪৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শ্যামনগরে শিক্ষিকা জেসমিন নাহার এর অকাল মৃত্যু জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী ॥ অনির্দিষ্টকালের জন্য মানুষের আয়-রোজগারের পথ বন্ধ রাখা যাবে না হকারদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী বিতরণ আশাশুনিতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ করলের জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের মাঝে ঈদ উপসার বিতরণ সোমবার ঈদুল ফিতর ঢাকা থেকে পালিয়ে আসা করোনা পজিটিভ আশাশুনির নিলুফা এখন সম্পূর্ণ সুস্থ কাশিমাড়ী খোলপেটুয়া নদীর বেড়িবাঁধ ভেঙে দুই উপজেলার ১২ গ্রাম প্লাবিত, কাজের কোনো অগ্রগতি নেই! সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের গণবিজ্ঞপ্তি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের পক্ষে ঈদ উপহার বিতরণ

তালা উপজেলার পশ্চিম খেশরায় ৪ থেকে ৫টি পানের বরজ আগুনে পুড়ে ছাই

দৈনিক দৃষ্টিপাত ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: শুক্রবার, ১০ মে, ২০১৯
  • ০ বার পড়া হয়েছে

খেশরা প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরার তালা উপজেলার খেশরা ইউনিয়নের পশ্চিম খেশরায় গত মধ্যেরাতে (১০-০৫-১৯) কে বা কারা ৪ থেকে ৫টি বরজে আগুন লাগিয়ে দেয় বলে পানচাষিরা জানান। ঘনাস্থলে যেয়ে দেখা যায় আগুন লাগান ফলে বরজগুলো আগুনে পুড়ে ছয়লাব হয়ে গেছে। এতে ক্ষতির পরিমান ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকার অধিক হবে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত পানচাষিরা। কয়েকটি বরজের জমি পাশাপাশি থাকায় একটি বরপে আগুন লাগার ফলে আগুন অতি দ্রুততার সাথে ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, সব মিলে ৪৮ থেকে ৫০ পোনের বরজ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত পানচাষী মোঃ ইনতাজ মোড়ল জানায় আশপাশের কোন বৈদ্যুতিক সংযোগ নেই আবার আমার সাথে গ্রামে তেমন কোন শক্রতাও নেই। কে বা কারা এমন কাজ করলো আমি বুঝতে পারছিনা। অনেকদিন পান না কাটার ফলে অনেক পান জমা হয়ে পড়েছিল। সমস্ত পান আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে আমার ১ থেকে ২ লক্ষ টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ আরেক পানচাষী মোঃ রবিউল মোড়ল জানান, আমার ১৫ থেকে ২০ পোনের পানের জমিতে প্রায় সবটুকুই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এখন আমি নিঃস্ব হয়ে গেছি। ক্ষতিগ্রস্থ আরো কয়েক পানচাষী গোবিন্দ মালোসহ অনেকেই বলেন, আমাদের সমস্থ পান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বরজের ‘ল’ শোলা সমস্তকিছু জ্বলে ছাই হয়ে গেছে। তবে এলাকাবাসী জানায়, আশপাশে কয়েকটি মোটর থাকার ফলে আগুন ৫ থেকে ৬ ঘন্টার প্রচেষ্টায় কিছুটা কমতে থাকলেও সবটুকু আগুন নিভাতে সকাল হয়ে যায়। সর্বোপরি গরীব পান চাষীরা সবটুকু হারিয়ে তারা এখন নিঃস্ব, অসহায়ের মতো চেয়ে আছে উধ্বতন মহলের সুদৃষ্টির দিকে। এমতাবস্থায় কিছুটা সহযোগিতা, সহমর্মিতা একান্ত প্রয়োজন বলে জানায় তারা। তবে এ ব্যাপারে খেশরা পুলিশ ক্যাম্প পরিদর্শকের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আমরা এখনো কোন অভিযোগ পাইনি, পেলে জরুরি ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41