1. admin@dainikdrishtipat.com : admin :
  2. driste4391@yahoo.com : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শ্যামনগরে শিক্ষিকা জেসমিন নাহার এর অকাল মৃত্যু জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী ॥ অনির্দিষ্টকালের জন্য মানুষের আয়-রোজগারের পথ বন্ধ রাখা যাবে না হকারদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী বিতরণ আশাশুনিতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ করলের জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের মাঝে ঈদ উপসার বিতরণ সোমবার ঈদুল ফিতর ঢাকা থেকে পালিয়ে আসা করোনা পজিটিভ আশাশুনির নিলুফা এখন সম্পূর্ণ সুস্থ কাশিমাড়ী খোলপেটুয়া নদীর বেড়িবাঁধ ভেঙে দুই উপজেলার ১২ গ্রাম প্লাবিত, কাজের কোনো অগ্রগতি নেই! সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের গণবিজ্ঞপ্তি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের পক্ষে ঈদ উপহার বিতরণ

কৈখালীর শিবচন্দ্রপুর রাস্তার পাশের সরকারী গাছ কাটার মহাৎসব ॥ ভূমি কর্মকর্তা জানেন না কিছুই

দৈনিক দৃষ্টিপাত ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: বুধবার, ১২ জুন, ২০১৯
  • ০ বার পড়া হয়েছে

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ শ্যামনগর উপজেলার কৈখালী ইউনিয়নের শিবচন্দ্রপুর গ্রামে রাস্তার পাশের প্রায় ১৫টি সরকারী গাছ কাটার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, শিবচন্দ্রপুর গ্রামের কেষ্ট গাইনের পুত্র তপন গায়েন ও প্রশান্ত গায়েন, মৃত শাসছুর গাজীর পুত্র সবিলা গাজী, মৃত এন্তাজ মাষ্টারের পুত্র ইদ্্িরস ও আবু তাহের, ভদ্র গাজীর পুত্র নূর ইসলাম, মৃত সোনা শেখের পুত্র জুম্মান আলী, মৃত সাকাত মোড়লের পুত্র আব্দুস সাত্তার, মৃত বিশে গাজীর পুত্র জলিল গাজী প্রত্যেকে তাদের বাড়ির সামনের রাস্তার পাশের সরকারী ছোট-বড় বিভিন্ন সাইজের শিশুফুল গাছ কেটে সরিয়ে ফেলেছে বলে স্থানীয়রা জানায়। গাছগুলো কাটার পর গাছের গোড়ার অংশ মাটি চাপা দিয়ে রেখেছে তারা। অন্যদিকে এ খবর কৈখালী ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা সুদিন কুমার সরকারকে মোবাইল ফোনে বার বার অবহীত করার পরও কোন রকম ব্যাবস্থ্য গ্রহন করেননি বলে জানা গেছে। এলাকাবাসি বলছেন, ভূমি সহকারী কর্মকর্তা সুদিন কুমার সরকার মোটা অংকের টাকা নিয়ে সরকারী গাছ কাটার সহযোগীতা করেছেন। তারা আরও বলেন, উক্ত ভূমি সহকারী কর্মকর্তার সহযোগিতায় অত্র এলাকার কিছু অসাধু ব্যক্তিদের দ্বারা বিভিন্ন স্থানের সরকারী গাছ অবাধে কর্তনসহ লুট পাটের এক মহাৎসব চলছে। একাধিক বার পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পরও সংশ্লিষ্ট প্রশাসন নিরব ভুমিকা পালন করায় সচেতন মহল হতাশ। এছাড়া এই প্রতিবেদক মোবাইল ফোনে কৈখালী ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা সুদিন কুমার সরকারের কাছে গাছ কাটার বিষয় জানতে চাইলে বিষয়টি তিনি খোঁজ রাখেন না বলে জানান। অন্যদিকে গাছ কর্তনকারীদের ভাষ্যমতে অত্র ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য অসিম কুমার মন্ডল ও ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তাকে বলে উক্ত গাছ কাটা হয়েছে বলে দাবী করেন তারা। এ বিষয়ে ইউপি সদস্য অসিম কুমার মন্ডলের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমি কি সরকারী লোক, যে তাদেরকে গাছ কাটার অনুমতি দেব। তারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা বলেছে। অত্র এলাকার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই জানিয়েছেন, সুযোগ বুঝে এলাকার কিছু অসাধু মহল অত্র এলাকার সরকারী কাছ কেটে লুট করার পাইতারা চালাচ্ছে। এমতাবস্থায় এলাকার সচেতন মহল সংশ্লিষ্ট প্রসাশনের জরুরী হস্তক্ষেপ কমনা করেছেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41