1. admin@dainikdrishtipat.com : admin :
  2. driste4391@yahoo.com : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ০৬:২৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শ্যামনগরে শিক্ষিকা জেসমিন নাহার এর অকাল মৃত্যু জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী ॥ অনির্দিষ্টকালের জন্য মানুষের আয়-রোজগারের পথ বন্ধ রাখা যাবে না হকারদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী বিতরণ আশাশুনিতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ করলের জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের মাঝে ঈদ উপসার বিতরণ সোমবার ঈদুল ফিতর ঢাকা থেকে পালিয়ে আসা করোনা পজিটিভ আশাশুনির নিলুফা এখন সম্পূর্ণ সুস্থ কাশিমাড়ী খোলপেটুয়া নদীর বেড়িবাঁধ ভেঙে দুই উপজেলার ১২ গ্রাম প্লাবিত, কাজের কোনো অগ্রগতি নেই! সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের গণবিজ্ঞপ্তি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের পক্ষে ঈদ উপহার বিতরণ

মার্কিন একাধিপত্যবাদের বিরোধিতা করার মূল্য দিচ্ছে ইরান

দৈনিক দৃষ্টিপাত ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: শুক্রবার, ৮ নভেম্বর, ২০১৯
  • ০ বার পড়া হয়েছে

এফএনএস বিদেশ : জাতিসংঘে নিযুক্ত ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের উপ-রাষ্ট্রদূত ইসহাক আল-হাবিবি বলেছেন, মার্কিন সা¤্রাজ্যবাদ ও আধিপত্যবাদের বিরোধিতা করার কারণে তার দেশকে চড়া মূল্য দিতে হচ্ছে। মার্কিন একাধিপত্যবাদ সারা বিশ্বের নিরাপত্তার জন্য ভয়াবহ হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। কিউবার ওপর মার্কিন সরকারের অর্থনৈতিক অবরোধের বিষয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে বক্তৃতা করতে গিয়ে ইরানি কূটনীতিক বৃহস্পতিবার এই মন্তব্য করেন। ভাষণে ইসহাক আল-হাবিবি বলেন ১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামি বিপ্লব সফল হওয়ার পর আমেরিকা ইরানের ওপরেও একইভাবে নিষেধাজ্ঞা আরাপ করেছে। তিনি বলেন, গত চার দশক ধরে আমেরিকা একতরফাভাবে ইরানের বিরুদ্ধে জবরদস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছে এবং সেটি দিন দিন বেড়েছে। ইসহাক-আল-হাবিবি বলেন, অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা হচ্ছে আমেরিকার হস্তক্ষেপমূলক এবং অদূরদর্শী নীতির প্রমাণ। নকিউবার বিরুদ্ধে আমেরিকা যে একতরফাভাবে অবরোধ আরোপ করেছে তার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ভোটাভুটি হয়। এতে বিশ্বের ১৮৭টি দেশ অবরোধের বিপক্ষে এবং মাত্র তিনটি দেশ পক্ষে ভোট দিয়েছে। আমেরিকার এই অর্থনৈতিক অবরোধের বিরুদ্ধে টানা ২৮ বছরের মতো সাধারণ পরিষদে প্রস্তাব পাস হলো। ইসহাক আল-হাবিবি বলেন, মার্কিন অর্থনৈতিক অবরোধ শুধুমাত্র আন্তর্জাতিক শান্তি ও উন্নয়নকে ক্ষতিগ্রস্ত করে না বরং স্বাভাবিক শান্তি-শৃঙ্খলাও বাধাগ্রস্ত করছে অথচ এগুলো হচ্ছে টেকসই উন্নয়নের জন্য জরুরি। ১৯৬১ সালের কিউবার সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করার পরপরই আমেরিকা দেশটির বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করে। এ সম্পর্কে ইসহাক আল-হাবিবি বলেন, একটি দেশের বিরুদ্ধে ৬০ বছরের অর্থনৈতিক অবরোধ অনেক বড় কঠিন শাস্তি। তিনি বলেন, বাস্তবতা হচ্ছে- ইরান এবং কিউবা আমেরিকার উপনিবেশবাদী নীতিকে প্রতিরোধ করতে গিয়ে অনেক বড় মূল্য দিচ্ছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41