1. admin@dainikdrishtipat.com : admin :
  2. driste4391@yahoo.com : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০, ০৫:২০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শ্যামনগরে শিক্ষিকা জেসমিন নাহার এর অকাল মৃত্যু জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী ॥ অনির্দিষ্টকালের জন্য মানুষের আয়-রোজগারের পথ বন্ধ রাখা যাবে না হকারদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী বিতরণ আশাশুনিতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ করলের জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের মাঝে ঈদ উপসার বিতরণ সোমবার ঈদুল ফিতর ঢাকা থেকে পালিয়ে আসা করোনা পজিটিভ আশাশুনির নিলুফা এখন সম্পূর্ণ সুস্থ কাশিমাড়ী খোলপেটুয়া নদীর বেড়িবাঁধ ভেঙে দুই উপজেলার ১২ গ্রাম প্লাবিত, কাজের কোনো অগ্রগতি নেই! সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের গণবিজ্ঞপ্তি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের পক্ষে ঈদ উপহার বিতরণ

আজ থেকে খুলনায় করোনা পরীক্ষা শুরু

দৈনিক দৃষ্টিপাত ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ৬ এপ্রিল, ২০২০
  • ০ বার পড়া হয়েছে


এফএনএস: করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্তে খুলনা মেডিকেল কলেজে (খুমেক) মঙ্গলবার থেকে পলিমার চেইন রিঅ্যাকশন (পিসিআর) মেশিনে পরীক্ষা শুরু হবে। ইতোমধ্যে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য খুমেক সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় আনুষ্ঠানিকভাবে করোনা পরীক্ষার কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন খুলনা সিটি করপোরেশনের (কেসিসি) মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক। খুলনা মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগ সহকারী অধ্যাপক ডা. এস এম তুষার আলম বলেন, খুলনায় মঙ্গলবার থেকে শুরু হবে করোনা ভাইরাস টেস্ট। খুমেকের তৃতীয় তলায় মাইক্রোবায়োলজি বিভাগে তৈরি হয়েছে মলি কুলার ল্যাব। এরপর স্থাপন করা হয়েছে পিসিআর মেশিন। রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) টিম এসে খুলনার সাতজন চিকিৎসককে প্রশিক্ষণ দিয়েছে। এ ছাড়া ৭০০ কিট এসে পৌঁছেছে খুলনায়। করোনা ইউনিটের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা যাদের স্যাম্পল পাঠাবেন শুধুমাত্র তাদের করোনা টেস্ট করা যাবে। এক সঙ্গে ৯০টির বেশি নমুনা পরীক্ষা করা যাবে। চার ঘণ্টায় জানা যাবে এর ফলাফল। গতকাল সোমবার খুলনা সিভিল সার্জন সূত্রে জানা গেছে, খুলনায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ২৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। আর ছাড়পত্র পেয়েছেন ৪১ জন। বিভাগটিতে মোট কোয়ারেন্টিনে আছেন ১ হাজার ৯৩৬ জন। আর ছাড়পত্র পেয়েছেন ১ হাজার ৭৫৮ জন। এদিকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের জন্য প্রস্তুত খুলনা ডায়াবেটিক হাসপাতাল। ডাক্তার-নার্সদের প্রশিক্ষণ শেষে শুরু হয়েছে ডিউটি। শুধুমাত্র আক্রান্ত রোগীদেরই সেখানে ভর্তি করে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে। তবে শনাক্ত হওয়ার আগ পর্যন্ত রোগীদের রাখা হবে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ ভবনের ফ্লু কর্নারে। সংশ্লিষ্ট সূত্রটি বলছে, খুলনা মেডিকেল কলেজে স্থাপিত পিসিআর মেশিনের মাধ্যমে শনাক্ত হলেই কেবল ওই রোগীকে ভর্তি করা হবে ডায়াবেটিক হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে। আর করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য নিয়োজিত চিকিৎসক, নার্স ও অন্যান্য জনবলের জন্য প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন হিসেবে প্রস্তুত করা হয়েছে মহানগরীর রূপসা স্ট্যান্ড রোডের সিএসএস আভা সেন্টারকে। ডাক্তারদের তিনদিন এবং নার্স ও অন্যান্য জনবলকে পাঁচদিন করে করোনার জন্য নির্দিষ্ট আইসোলেশন ওয়ার্ডে (ডায়াবেটিক হাসপাতাল) ডিউটি দেওয়া হয়েছে। প্রতি শিফটে ডিউটি শেষে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক, নার্স ও অন্যান্যের পাঠানো হবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে। তবে যতক্ষণ পজেটিভ রোগীদের সেখানে না নেওয়া হবে ততক্ষণ পর্যন্ত সংশ্লিষ্টদের কোয়ারেন্টিনে নেওয়ার প্রয়োজন হবে না। খুলনা মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মো. মেহেদী নেওয়াজ বলেন, করোনা ভাইরাস বিশেষায়িত হাসপাতাল হিসেবে খুলনা ডায়াবেটিস হাসপাতাল প্রস্তুত। মহানগরীর বয়রা নূর নগরে হাসপাতালটি চারটি আইসিইউ বেডসহ মোট ৮০টি বেডের ব্যবস্থা। এ ছাড়া কয়েকদিনের মধ্যে বাড়ানো হবে আরো ১০টি আইসিইউ বেড। তিনি বলেন, ৬০ জন চিকিৎসক, ৬০ জন নার্স ও ৫০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিযুক্ত আছেন সেবায়। প্রয়োজনে হাসপাতালটির বেড ও চিকিৎসক বাড়ানো হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41