1. admin@dainikdrishtipat.com : admin :
  2. driste4391@yahoo.com : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০১:৩৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কাজ শেষ না করে কাজ পাবে না ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে জেএস এ কাব অনুর্ধ চৌদ্দ মহিলা চ্যাম্পিয়নদের মাঝে খেলা উপকরন বিতরন কলারোয়ায় চার খুনের মামলায় ভাই রায়হানুলের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল সাতক্ষীরায় দন্ডিত আসামীকে গাছ লাগানোর শর্তে মিললো মুক্তি সাতক্ষীরা কালেক্টরেট সহকারী সমিতির অষ্টম দিনেও কর্মবিরতি পালিত সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত মাস্ক পরিধান ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত মোবাইল কোর্ট জেল জরিমানা আদায় সাতক্ষীরায় ১০০জন হতদরিদ্র মহিলাদের মাঝে ক্ষুদ্র ঋণের চেক বিতরণ সাতক্ষীরায় দৈনিক ভোরের চেতনা পত্রিকার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত শীতের সাথে সাথে বাড়ছে করোনা প্রাদুর্ভাব

কলারোয়ায় ঢাকা ফেরত এক যুবকের করোনা শনাক্ত, ৮ বাড়ি লকডাউন

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • Update Time : শনিবার, ১৬ মে, ২০২০

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি ॥ সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ঢাকা ফেরত মোজাইদুল ইসলাম নামে যুবকের (৩৭) করোনা শনাক্ত হয়েছে। এই প্রথম কলারোয়ায় কোন ব্যক্তির করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসলো। শনিবার (১৬ মে) করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে ওই যুবকের। তিনি উপজেলার চন্দনপুর ইউনিয়নের দাড়কি গ্রামের মৃত মনিরুজ্জামানের ছেলে । বর্তমানে তিনি বাড়িতেই অবস্থান করছেন । তবে এখন পর্যন্ত তার সর্দি, কাশি, জ্বর, গলাব্যথাসহ করোনার কোন উপসর্গ নেই বলে জানিয়েছেন তিনি। এতে করোনা আক্রান্ত যুবকের বাড়িসহ আশপাশের ৮টি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে বলে থানার ওসি শেখ মুনীর-উল-গীয়াস জানিয়েছেন। এদিকে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার রিপোর্ট পাওয়ার সাথে সাথে কলারোয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ, উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডা. জিয়াউর রহমান, থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মুনীর-উল-গীয়াসসহ সংশ্লিষ্টরা ওই যুবকের মানসিক শক্তি বাড়াতে দুপুরের পরপরই তার বাড়িতে ছুটে যান। আতংকিত না হয়ে মানবিক হয়ে সকলকে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলার আহবান জানিয়েছেন তারা। শনিবার বেলা ৩টর দিকে করোনা পজেটিভের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার জিয়াউর রহমান। তিনি জানান- ‘উপজেলার চন্দনপুর ইউনিয়নের দাড়কি গ্রামের ওই যুবক ও তার স্ত্রীর নমুনা ১২ মে সংগ্রহ করে ১৩ মে পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করা হয়। শনিবার (১৬ মে) তার করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। আমরা সেখানে গিয়ে আক্রান্ত ব্যক্তির মানসিক মনোবল বৃদ্ধিসহ চিকিৎসাসেবা সংক্রান্ত তথ্য দিয়েছি। ওই ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের ৮ বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন- এদিন পর্যন্ত কলারোয়ায় ১৩৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। শনিবারই এই প্রথম পজেটিভ রিপোর্ট আসলো। উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু বলেন, তার বাড়িতে তিনি গিয়েছিলেন। করোনা শনাক্তকারীকে আতংকিত না হয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী থাকার আহবান জানানো হয়েছে। মনোবল শক্ত রাখতে বলা হয়েছে, বলেছি আমরা সবাই তার পাশে আছি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ জানান, আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়িতে তিনি গিয়েছিলেন। স্থানীয় জনসাধারণকে সজাগ-সচেতন থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মুনীর-উল-গীয়াস জানান, তিনিসহ পুলিশ সদস্যরা তার বাড়িয়ে গিয়েছিলেন। আক্রান্ত রোগীসহ আশে পাশের ৮টি বাড়িতে লালপতাকা তুলে লকডাউন করা হয়েছে। স্থানীয়দের সর্বোচ্চ সতর্কতায় অবলম্বন করতে বলা হয়েছে। করোনা আক্রান্তকে শঙ্কিত না হয়ে মনোবল শক্ত রাখার আহবান জানানো হয়েছে। আমরা তার পাশে আছি। চন্দনপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম মনি বলেন, দাড়কি গ্রামের ওই যুবক স্ত্রীকে নিয়ে সম্প্রতি ঢাকা থেকে বাড়িতে আসেন। আমি সংবাদ পেয়ে মোবাইল ফোনে তাকে করোনা টেস্টের জন্য নমুনা দিতে কলারোয়া যেতে অনুরোধ করি। সেই মোতাবেক নমুনা দিয়ে আসার পর শনিবার তার পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে বলে হাসপাতাল থেকে আমাকে জানিয়েছেন। আমরা তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের বাড়ি লকডাউন করেছি। সার্বিক সহযোগিতায় তাদের পাশে থাকবো বলে তিনি জানান। এদিকে, মোবাইল ফোনে করোনা আক্রান্ত যুবক জানান, সে ঢাকার একটি বায়িং হাউসে চাকরি করেন। স্ত্রীকে নিয়ে থাকতেন সাভারে। গত ১০ মে গ্রামের বাড়ি দাড়কি আসেন। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তাকে করোনা টেস্ট করাতে বললে স্ত্রীসহ তিনি ১২ মে কলারোয়া হাসপাতালে গিয়ে নমুনা দেন। শনিবার (১৬ মে) চেয়ারম্যানেরে মেবাইল ফোনে তিনি জেনেছেন তার করোনার পজেটিভ রেজাল্ট এসেছে। তিনি জোর দিয়ে আরো বলেন, এখন পর্যন্ত জ্বর, সর্দি, কাশি, গলাব্যথা বা করোনা উপসর্গ কোন লক্ষণ আমি টের পাচ্ছি না। তবে যেহেতু পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে সেহেতু নিয়ম মেনে এর থেকে উত্তরণের জোর চেষ্টা করবো। সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন। উল্লেখ্য, করোনা পজেটিভ ওই যুবকের মা-বাবা মারা গেছেন। গ্রামে তার আরো ৩ ভাই পরিবার নিয়ে পাশেই থাকেন। এদিকে, প্রথমবারের মতো কলারোয়ায় কারো শরীরে করোনা সনাক্ত হওয়ায় চারিদিকে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, গত ৩/৪দিন বিভিন্ন সময়ে করোনা শনাক্ত যুবককে তার বাড়ির পাশেই হিজলদী বাজারসহ আশপাশে ঘুরতে দেখা গেছে। এমনকি তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিরা কিংবা বাড়ির আশপাশের লোকজন হিজলদী বাজার, পাড়া ও হিজলদী কমিউনিটি ক্লিনিকসহ বিভিন্ন স্থানে গিয়েছেন। এতে ওই এলাকার প্রায় সকলেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।

শেয়ার

আরও খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41