1. admin@dainikdrishtipat.com : admin :
  2. driste4391@yahoo.com : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শ্যামনগরে শিক্ষিকা জেসমিন নাহার এর অকাল মৃত্যু জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী ॥ অনির্দিষ্টকালের জন্য মানুষের আয়-রোজগারের পথ বন্ধ রাখা যাবে না হকারদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী বিতরণ আশাশুনিতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ করলের জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের মাঝে ঈদ উপসার বিতরণ সোমবার ঈদুল ফিতর ঢাকা থেকে পালিয়ে আসা করোনা পজিটিভ আশাশুনির নিলুফা এখন সম্পূর্ণ সুস্থ কাশিমাড়ী খোলপেটুয়া নদীর বেড়িবাঁধ ভেঙে দুই উপজেলার ১২ গ্রাম প্লাবিত, কাজের কোনো অগ্রগতি নেই! সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের গণবিজ্ঞপ্তি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের পক্ষে ঈদ উপহার বিতরণ

সাতক্ষীরায় সুপার সাইক্লোন আম্ফানের থাবায় তছনছ সব কিছু ॥ মৎস্য কৃষি ও গবাদী পশু, ক্ষতি ৩১৪ কোটি টাকা

দৈনিক দৃষ্টিপাত ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: শুক্রবার, ২২ মে, ২০২০
  • ৪৬ বার পড়া হয়েছে

মীর আবু বকর ॥ সুপার সাইক্লোন আম্ফানের তান্ডবে সাতক্ষীরার উপকূলীয় অঞ্চল তছনছ হয়েগেছে। মহাপ্রলয়কারী ঘূর্ণিছড় আম্ফানে জীবন হানীর পাশাপাশি ঘরবাড়ী, মৎস্য ঘের কৃষি পন্য ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বিদ্যুৎ বিহীন ও মোবাইল নেটওয়ার্কের সমস্যার বিপর্যস্থ ছিল পুরো জেলাবাসী। জলোচ্ছাসে নদীর পানি স্বাভাবিকের চেয়ে অতি: বৃদ্ধি পাওয়া বানের জলে ভেসে গেছে হাজার হাজার লোনা পানির ঘের, পুকুর মাছ ভেসে গেছে তার হিসাবনেই। ঘূর্ণি ঝড়ের প্রবল তান্ডবে হাজার হাজার ঘর বাড়ি উড়েছে। পানির ঢেউয়ে গলে গেছে দুঃস্থ অসহায়ের মাটির ঘর। মাঠের কৃষকের ফসল ডুবেছে। পাশাপাশি গবাদী পশু খামারীদের মরছে মুরগী পন্ড করে দিয়েছে আশার আলো। সুপার সাইক্লোন আম্ফানের থাবায় তছনছ করে দিয়েছে উপকুল বাসীর শেষ আশ্রয় স্থল। এমন কি মানুষের রান্না করে খাওয়ার জায়গাটিও শেষ হয়ে গেছে। উপড়ে পড়েছে হাজার হাজার বৃক্ষরাজী, একই অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে বিদ্যুৎ খুটিতে, তার দিতেও খুটি উপড়ে বিদুৎ্যহীন হয়ে পড়ে। সর্বত্ত গত বুধবার দুপুর থেকে ভারতের পশ্চিমবাদ দিয়ে বাংলাদেশের উপকুল অঞ্চলে প্রবেশ করে ঘূর্ণিঝড় আম্ফান সুপার সাইক্লোন প্রথম সুন্দরবনের উপর আঘাত হানে। বাংলাদেশ প্রকৃত বন্ধু সুন্দরবন বুকদিয়ে আম্ফানের গতি কমিয়ে দেয়। পরবর্তিতে সুপার সাইক্লোনের প্রবাল গতি সাতক্ষীরার উপকুল অঞ্চলে থাবাবসায় যাহার প্রভাবে উপকূল অঞ্চলের পাশাপাশি লন্ডভন্ড হয়ে যায় সাতক্ষীরা জেলা সহ পাশ্ববর্তী অঞ্চল। সাতক্ষীরায় ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তান্ডবে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। জীবন হারাতে হয়েছে দুই জনের, বিধ্বস্ত শত শত ঘরবাড়ি কৃষি পণ্য মৎস্য ও গবাদী ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়েছে। সাতক্ষীরায় কৃষিতে ক্ষতির পরিমান জানতে চাইলে কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপপরিচালক ভারপ্রাপ্ত নুরুল ইসলাম দৃষ্টিপাতকে জানান জেলায় ৪১২০ হেক্টর জমিতে আম চাষ হয় এর নষ্ট হয়েছে ১৬ হাজার ২ শত ৯৬ টন। সবজি দুই হাজার ৭২ হেক্টর জমিতে ৩১ হাজার টন। পান ২৩১ হেক্টর জমিতে নষ্ট হয়েছে ১২৭০ টন। তিল ১০ হেক্টর জমির কৃষিতে ক্ষতির পরিমান ১৩৮ কোটি টাকা প্রায় মৎস্য ক্ষতির বিষয় জানতে চাইলে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মশিউর রহমান দৃষ্টিপাতকে জানান আম্ফানের তান্ডবে আশাশুনী ৬০৪২টি শ্যামনগর ৪০০০টিও কালিগঞ্জ ২১৫ টি মৎস্য ঘের ভেসে গেছে। জমির পরিমান ১৩ হাজার ৪ শত ৭৭ হেক্টর এখানে বাগদা সাদা মাছ ও পোনা চাষ করা হত, পুকুরে ক্ষতি হয়েছে হাজার হাজার, ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ১৭৬ কোটি টাকা প্রাণীকুলের বিষয় জানতে চাইলে জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা মোঃ শহিদুল ইসলাম দৃষ্টিপাতকে জানান গবাদী পশুর ১১৫টি খামার, হাস মুরগী ১২৫টি খামার নষ্ট হয়েছে। ৩৩টন দানা খাবার, ৬১ টন ঘাস ও খড়, মৃত গরু ১৮টি, ছাগল ১২৮, ভেড়া ১৮, মুরগি ১৫ হাজার ৩০১ সহ অন্যান্য প্রাণী ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ৯৪ লক্ষ ৫১ হাজার ৫০০টাকা।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41