1. admin@dainikdrishtipat.com : admin :
  2. driste4391@yahoo.com : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
শনিবার, ০৮ অগাস্ট ২০২০, ১২:৪৯ অপরাহ্ন

রাশিয়ায় করোনা ভ্যাকসিনের সফল পরীক্ষা!

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • Update Time : রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০

এফএনএস : করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের লক্ষ্যে বড় সাফল্য দাবি করলেন রুশ বিজ্ঞানীরা। তাদের দাবি, গামালেই ইনস্টিটিউট অব এপিডেমোলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজি তৈরি করা করোনার ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা সফল হয়েছে, যা বিশ্বে প্রথম। করোনাভাইরাসের মহামারির প্রকোপে স্তব্ধ গোটা বিশ্ব। ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত ভাইরাস থেকে সম্পূর্ণ মুক্তি পাওয়া সম্ভব নয়। যে কারণে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের প্রতিষেধকের অপেক্ষায় তীর্থের কাকের মতো চেয়ে আছে বিশ্বের মানুষ। এ পরিস্থিতিতে বড় সাফল্য রুশ বিজ্ঞানীদের। বিশ্বে নজির গড়ে এই প্রথম মানব শরীরে করোনার ভ্যাকসিনের সফল প্রয়োগ হয়েছে বলে জানাল সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয়। এক দল স্বেচ্ছাসেবকের ওপর এই পরীক্ষা চালানো হয়েছে বলে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন ইনস্টিটিউট অব ট্রান্সন্যাশনাল মেডিসিন অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি’র ডিরেক্টর ভাদিম তারাসোভ। তাকে উদ্ধৃত করে সংবাদমাধ্যম ঝঢ়ঁঃহরশ আরেও জানিয়েছে, ক্লিনিক্যাল পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী স্বেচ্ছাসেবকদের প্রথম দলকে আগামী বুধবার ছেড়ে দেওয়া হতে পারে। আর দ্বিতীয় দলটি আগামী ২০ জুলাই বাড়িতে ফিরতে পারবেন। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে, রাশিয়ার গামালেই ইনস্টিটিউট অব এপিডেমোলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজি করোনার এই ভাকসিনটি তৈরি করেছে। গত ১৮ জুন সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয়ে সেটির ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা শুরু হয়। বিশ্বের প্রথম প্রতিষ্ঠান হিসেবে তারাই স্বেচ্ছাসেবকদের ওপরে এই ওষুধের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করল বলে দাবি সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের। সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল প্যারাসাইটোলজি, ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ভেক্টর বর্ন ডিজিসেসের ডিরেক্টর অ্যালেকজান্দ্রা লুকাসেভ জানিয়েছেন, পরীক্ষার এই পর্যায়ের মূল লক্ষ্য ছিল মানব শরীরে এই ভ্যাকসিন কতটা নিরাপদ তা খতিয়ে দেখা। এই পরীক্ষা সাফল্যের সঙ্গে শেষ হয়েছে। সংবাদমাধ্যম ঝঢ়ঁঃহরশ-কে তিনি বলেছেন, ‘এই ভ্যাকসিন সম্পূর্ণ নিরাপদ। ক্লিনিক্যাল টেস্টেই তা প্রমাণিত হয়েছে।’ আরো ভ্যাকসিন তৈরির ভাবনা তাদের আছে বলে জানিয়েছে ওই রুশ বিশ্ববিদ্যালয়টি। এর আগে রেমডেসিভির নিয়ে আশার আলো দেখা গিয়েছিল। পরে ইতালি দাবি করেছিল তারা আবিষ্কার করে ফেলেছে কভিড-১৯-এর ভ্যাকসিন বা টিকা। এই টিকা পরীক্ষার পর আশানুরূপ ফল মিলেছে বলে দাবি বিজ্ঞানীদের। এর আগেও একাধিকবার করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন অথবা প্রতিষেধক তৈরির খবর সামনে এসেছে। আবার পরে তা হতাশও করেছে। তবে রুশ বিজ্ঞানীদের এদিনের দাবি সত্যি হলে করোনার বিরুদ্ধে চলতি যুদ্ধে জয় নিশ্চিত বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

শেয়ার

আরও খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41