1. admin@dainikdrishtipat.com : admin :
  2. driste4391@yahoo.com : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:২২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
চীনে ছয় মাসের অধিক সময় কাঁকড়া রপ্তানী বন্ধ ॥ অর্থনীতিতে বিরুপ প্রভাব : হাজার হাজার পরিবার আর্থিক সংকটে প্যানেল আইনজীবীদের সভায় সিনিয়র জেলা জজ শেখ মফিজুর রহমান ॥ অসহায় গরীব মানুষের সমব্যাথী হতে হবে মসজিদই কুবা জামে মসজিদে ৩ লক্ষ টাকা অনুদানের অগ্রিম বিল প্রদান জলবায়ু-করোনা মোকাবেলায় বৈশি^ক কর্মপরিকল্পনা গ্রহণের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সুলতানপুর বড়বাজারে র‌্যাবের অভিযান ॥ নকল প্রসাধনী জব্দ ॥ ব্যবসায়ীকে কারাদন্ড আবারো ভয়াবহ ভাঙনের আশংকায় গাবুরাবাসী আকামার মেয়াদ বাড়লো ২৪ দিন সাতক্ষীরায় র‌্যাবের অভিযানে ৮৭ বোতল ফেন্সিডিল সহ আটক দুই নিজের বিয়ে নিজেই বন্ধ করলো মাদ্রাসা ছাত্রী শিশু শিক্ষার্থীকে বেত্রাঘাত, প্রধান শিক্ষকের বেতন বৃদ্ধি স্থগিত

আশাশুনির বিভিন্ন নদীতে নেট জাল দিয়ে রেণু পোনা নিধন চলছে

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • Update Time : শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০

এম এম নুর আলম ॥ আশাশুনি উপজেলার বিভিন্ন নদীতে অবৈধ নেটজাল পেতে রেণু পোনা নিধনের ঘটনা ঘটে চলেছে। ফলে এলাকার নদী থেকে রেণু পোনার সাথে বিভিন্ন মাছের রেণু নিধনের প্রেক্ষিতে নদীগুলো মাছ শূন্য হওয়ার আশঙ্কা বিরাজ করছে। উপজেলার বেতনা নদীর কয়েক কিলোমিটার তীর জুড়ে বিভিন্ন স্থানে নদীর ভাটা শুরু হলে রেণু সংগ্রহ করার দৃশ্য প্রতিদিন চোখে দেখা যায়। কিশোর-যুব-বয়স্করা এসময় উৎসবে মাতে নদীর চরে মাছ ধরার কাজে। নদীর তীর জুড়ে স্রোতের বিপরীতে ছোট ছোট এলাকা নিয়ে খুঁটি পুঁতে রাখা হয়। জোয়ারের সময় উজানে বাগদা চিংড়ীর পোনা ও রেণু উঠে আসে। জোয়ারের টানে উঠে আসা পোনা নদীর তীর ঘেষে নীচের দিকে নামার চেষ্টাকালে নদীতে পুঁতে রাখা পানির এক ফুট নিচে খুঁটির সাথে অবৈধ নেট ও পাটায় বাধাপ্রাপ্ত হয়ে রেণু পোনা আটকে যায়। আটকে যাওয়া এসব (মাছের বাচ্চা) রেণুর সাথে দেশীয় মাছের পোনা ও ছোট কাঁকড়াও উঠে আসে। নদী থেকে নেট উপরে (ডাঙ্গায়) তুলে আনার পর রেণুগুলো বাছাই করে নেয়া হয়। এসময় জালে আটকে থাকা ছোট ছোট মাছ ও কাঁকড়া মরে যায় বা ফেলে দিয়ে নিধন করা হয়। এতে করে নদীতে দেশীয় মাছ ও কাঁকড়া দিনে দিনে কমে যাচ্ছে বা উধাও হয়ে যাচ্ছে। অপরিকল্পিত ভাবে নদীতে রেনু ধারার নামে সকল প্রকার মাছের নিধন কাজের কারনে এলাকার নদীতে এখন ১২ মাস আর মাছের সন্ধান মেলেনা। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এসব অবৈধ রেণু নিধন বন্ধে কয়েকবার মোবাইল কোর্টে জরিমানা ও নেট জাল বিনষ্ট করা হয়েছে। মানুষকে অপরাধ না করতে প্রচার ও সচেতনতা সৃষ্টির জন্য সভা করা হয়েছে। প্রয়োজনে আবারও মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ব্যবস্থা নিতে ইউএনও মহোদয়সহ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে পরামর্শ করা হবে।

শেয়ার

আরও খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41