1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৫৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শপথ নিলেন বাইডেন বিচার বিভাগের কর্মচারিদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন করলেন মানবতার জজ শেখ মফিজুর রহমান পদোন্নতি পেলেন সাতক্ষীরার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট বিলাস মন্ডল ও ইয়াসমিন নাহার সাতক্ষীরায় ক্ষুদ্র ও কুটিরশিল্পে ধ্বস \ মুখ থুবড়ে পড়েছে রপ্তানি যোগ্য টালি শিল্প করোনায় অর্থনৈতিক মন্দা এড়াতে পেরেছে বাংলাদেশ -প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনী আপিল ট্রাইবুনালের বিচারক বিজ্ঞ সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে বাংলাদেশের শুভ সূচনা সখিপুরে শীতবস্ত্র বিতরন করলেন নজরুল ইসলাম করোনার ধাক্কায় বন্ধ হয়েছে হাজার হাজার কাঁকড়া খামার হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প

যমুনার ওপর বঙ্গবন্ধু রেলওয়ে সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • Update Time : রবিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২০

এফএনএস: যমুনা নদীর ওপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেলওয়ে সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি সেতুর নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন। সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসন সম্মেলনকক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জাপান আমাদের অকৃত্রিম বন্ধু। ’৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় জাপানের ছোট্ট ছোট্ট শিশুরা তাদের টিফিনের টাকা পর্যন্ত আমাদের জন্য দিয়েছে। স্বাধীনতার পর জাতির পিতা যখন যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ গঠনের কাজ শুরু করেন, তখন জাপান পাশে ছিল। জাপানের এই সহযোগিতার কথা আমরা স্মরণ করছি।’ তিনি বলেন, ‘জাতির পিতা ১৯৭২ সালে যখন জাপান যান, তখন তিনি জাপান সরকারকে যমুনা নদীর ওপর এই সেতু নির্মাণ করার জন্য অনুরোধ করেন। ১৯৫৩ সালে আওয়ামী লীগের যে সম্মেলন হয়, সেখানে এই সেতু নির্মাণের প্রস্তাবনা ছিল।’ শেখ হাসিনা বলেন, ‘১৯৭৪ সালে জাপান যমুনা নদীর ওপর কাজ শুরু করে। কিন্তু ’৭৫ এর ১৫ আগস্ট জাতির পিতাকে হত্যার মাধ্যমে তা থেমে যায়। যমুনা সেতু যখন নির্মাণ করা হয়, তখন আমার একটা মত ছিল, তাতে রেললাইন থাকবে। পাশাপাশি গ্যাস ও বিদ্যুৎ লাইনও থাকতে হবে। এত বড় একটা নদীর ওপর সেতু হবে, এটা নিয়ে তখন প্রচন্ড বাধার মুখে পড়েছিলাম। পরে এর ডিজাইন হয়ে যায়। আমরা ক্ষমতায় আসার পর আবারও রেললাইন করার উদ্যোগ নিই।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আজকের এই সেতু নির্মাণের মূল লক্ষ্য হচ্ছে এশিয়ান হাইওয়ে ও ট্রান্স এশিয়ান রেলওয়ের সঙ্গে যুক্ত হওয়া।’

শেয়ার

আরও খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41