1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:২০ পূর্বাহ্ন

ভারতে অবৈধভাবে গরু আনতে গিয়েই সুন্দরবনে বাঘের কবলে পড়ে মিজান ও রতন, ফিরল মুসা

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • Update Time : রবিবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২১

এসএম জাকির হোসেন শ্যামনগর থেকে \ ভারত থেকে অবৈধ পথে গরু আনতে গিয়েই বাঘের আক্রমণে নিহত হয়েছে শ্যামনগর উপজেলার পশ্চিম কৈখালী গ্রামের মনো মিস্ত্রির পুত্র মিজানুর রহমান (৪০) ও একই গ্রামের কফিল উদ্দিনের পুত্র রতন (৪২)। বাঘের মুখ থেকে জীবন নিয়ে গতকাল রবিবার দুপুরে বাড়ি ফিরে আসে ঐ দলের আরেক সদস্য একই গ্রামের আব্দুস সাত্তারের পুত্র আবু মুসা (৪১)। ঘটনা সুত্রে জানা যায়, মিজানুর রহমান, রতন ও আবু মুসা স্থানীয় চিহ্নিত গরু পাচারকারী মামুন ও আইজুলের গরু আনতে সুন্দরবনের মধ্যদিয়ে নদী পথে ভারতে যাচ্ছিলেন। বাঘের কবল থেকে ফিরে আসা আবু মুসা দৈনিক দৃষ্টিপাতকে জানায়, গরু আনতে যাওয়ার জন্য তার দুলাভাই মিজানুর রহমান তাকে উদ্বুদ্ধ করেছিলেন। এই প্রথমবার তার গরু আনতে যাওয়া। এজন্য অগ্রিম পাঁচ হাজার টাকাও নিয়েছিলেন তিনি। গত বুধবার ২০ জানুয়ারি সন্ধ্যায় নৌকায় উঠার পর সারারাত নৌকা চলে। বৃহস্পতিবার দিনের আলো ফুটলে তারা ভারতের কাছাকাছি সুন্দরবনের মধ্যে একটি খালে নৌকা ভীড়ে অবস্থান করছিলেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে নৌকায় গরু আনতে সুবিধার জন্য কাঠ কাটতে বনে প্রবেশ করলে একটি বাঘ দুলাভাই মিজানুর রহমানকে প্রথমে আক্রমণ করে। এসময় রতন চিৎকার করলে বাঘ রতনকেও আক্রমণ করে। তখন খালে ঝাঁপিয়ে পড়ে নৌকার নিচে আশ্রয় নিয়ে কোন মতে জীবনে রক্ষা পান তিনি। দীর্ঘসময় একা নৌকা নিয়ে ভারতের দিকে যাওয়ার পথে এক ভারতীয় জেলে দম্পতির সাথে তার দেখা হয়। এসময় তাকে সবকিছু খুলে বললে তারা মুসাকে আশ্রয় দেন। ওই জেলে দম্পতির বাড়িতে একদিন থাকার পর সীমান্ত এলাকার অন্য একজনকে টাকা দিয়ে সুন্দরবনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ সীমান্তে প্রবেশ করেন তিনি। পরবর্তীতে কৈখালী ইউনিয়নের চার-পাঁচজন জেলে নৌকায় করে তাকে এলাকায় নিয়ে আসে। তার দুলাভাই মিজানুর রহমান ও রতনকে বিএসএফে গুলি করেছে কিনা জানতে চাইলে আবু মুসা জানায়, বিএসএফের গুলি করার ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমার চোখের সামনে বাঘ আমার দুলাভাই মিজানুর ও রতনের উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে, আমি কোনো রকমেই জীবন নিয়ে বাড়ি ফিরেছি। এ বিষয়ে এলাকায় নানা গুঞ্জন, এলাকার সাধারণ মানুষের মনে প্রশ্ন জেগেছে, সত্যিই কি মিজানুর রহমান ও রতন বাঘের কবলে পড়েছে, না বিএসএফ গুলি করেছে, না তাদেরকে হত্যা বা অন্য কিছু করা হয়েছে। এ বিষয়ে রতনের স্ত্রী জানান, মামুন আরিজুল সহ কয়েকজন বুধবার রতনকে নিয়ে যায়। তাকে নিয়ে মেরে ফেলেছে নাকি বাঘে ধরেছে জানি না। আমরা তার মরদেহ অথবা তাকে জীবিত চাই।

শেয়ার

আরও খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41