1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০৭:৩০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
চালের উৎপাদন বাড়লেও ভোক্তা পর্যায়ে কমছে না দাম রেকর্ড গড়া জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের সাতক্ষীরায় কঠোর লকডাউনে চিকিৎসাধীন মৃত্যু ৯ \ শনাক্ত ৬১ জন আশাশুনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে ঢাকাস্থ ছাত্র কল্যাণ সমিতির শুভেচ্ছা বিনিময় বৃহস্পতির উপগ্রহ ইউরোপা অভিযানের প্রস্তুতি নাসার বিজিবি পৃথক অভিযানে সীমান্ত থেকে আটক ৫ শ্যামনগর বুড়িগোয়ালীনীতে রাস্তার বেহাল দশা পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান দোলন নূরনগরে বেশি দামে সার বিক্রি করার অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা খাজরায় মূর্তি চুরির ঘটনায় মন্দির পরিদর্শন করলেন সহকারি পুলিশ সুপার জামিল আহমেদ চামড়া শিল্পের দুরবস্থা নিরসন জরুরী

শ্রীপুর কুড়িকাহুনিয়ার ভাঙ্গন পয়েন্ট আটকানো গেলেও \ অন্য দুটি পয়েন্টে জোয়ার ভাটায় নিমজ্জিত প্রতাপনগর

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • Update Time : সোমবার, ২১ জুন, ২০২১

মাসুম, প্রতাপনগর,আশাশুনি, প্রতিনিধি \ পানি উন্নয়ন বোর্ড ঠিকাদার ও স্থানীয়দের সার্বিক সহযোগিতায় শ্রীপুর কুড়িকাহুনিয়া লঞ্চ ঘাটের দক্ষিণ পশ্চিম অংশের ভাঙ্গন পয়েন্ট আটকানো সম্পন্ন হয়েছে। তবুও সংশয় কাটতে সময় লাগবে। উপকূলীয় প্রতাপনগর ইউনিয়নের অন্য দুটি ভাঙ্গন পয়েন্ট দিয়ে খোলপেটুয়া নদীর লবণাক্ত বিষাক্ত জ্বলের জোয়ার ভাটায় প্রতিনিয়ত নিমজ্জিত ও পানি বন্দি অবস্থায় প্রতাপনগর ইউনিয়নের কয়েক হাজার পরিবার। গত ২৬ মে ২১ বুধবার ঘুর্নিঝড় ইয়াস প্রভাবে প্রতাপনগরের শ্রীপুর কুড়িকাহুনিয়া লঞ্চ ঘাটের দক্ষিণ পশ্চিম অংশের মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ এই বেড়িবাঁধের পাশাপাশি দুটি স্থানের প্রায় ২০০ ফুট বেড়িবাঁধ, প্রতাপনগর হরিশ খালির মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ ও প্রতাপনগর ইউনিয়ন সংলগ্ন পদ্মপুকুর ইউনিয়নের বন্যতলা গ্রামের মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়ে আজও দুটি ভাঙ্গন পয়েন্ট দিয়ে খোলপেটুয়া নদীর লবণাক্ত বিষাক্ত পানির জোয়ার ভাটা চলছে। চার দিন পূর্বে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিয়োগকৃত ঠিকাদারের মাধ্যমে শ্রীপুর কুড়িকাহুনিয়া বেড়িবাঁধ ক্লোজার আটকানোর ২৪ ঘন্টাও টিকে থাকিনি। বাঁধ আটকানোর পর আবারও এলাকা প্লাবিত হয়ে যায়। গতকাল সকাল থেকেই ভাঙ্গন পয়েন্ট ক্লোজার আটকানোর চেষ্টা করা হয়। এবং আশা করা হচ্ছে বাঁধটি টিকে থাকবে। বর্তমানে এই ভাঙ্গন পয়েন্ট আটকানোর ফলে এই স্থান দিয়ে কপোতাক্ষ নদীর জোয়ার ভাটা বন্ধ হলো। ইউনিয়নের একটি অংশ কিছুটা হলেও জোয়ার ভাটার লোনাপানির স্রোতের হাত থেকে রক্ষা পেলো। উলে­খ্য যে প্রতাপনগর হরিশখালির ভাঙ্গন পয়েন্ট ও প্রতাপনগর ইউনিয়ন সংলগ্ন শ্যামনগর উপজেলার পদ্মপুকুর ইউনিয়নের বন্যতলা গ্রামের ভাঙ্গন পয়েন্ট দিয়ে আজও প্রতাপনগর ইউনিয়নের জনপদ প্লাবিত যার প্রেক্ষিতে উপকূলীয় এ অঞ্চলের মানুষেরা সীমাহীন দুঃখ দুর্ভোগ দূর্দশা দুর্বিষহময় জীবন যাপন করতে বাধ্য হচ্ছে।

শেয়ার

আরও খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41