1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০১:২১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
চালের উৎপাদন বাড়লেও ভোক্তা পর্যায়ে কমছে না দাম রেকর্ড গড়া জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের সাতক্ষীরায় কঠোর লকডাউনে চিকিৎসাধীন মৃত্যু ৯ \ শনাক্ত ৬১ জন আশাশুনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে ঢাকাস্থ ছাত্র কল্যাণ সমিতির শুভেচ্ছা বিনিময় বৃহস্পতির উপগ্রহ ইউরোপা অভিযানের প্রস্তুতি নাসার বিজিবি পৃথক অভিযানে সীমান্ত থেকে আটক ৫ শ্যামনগর বুড়িগোয়ালীনীতে রাস্তার বেহাল দশা পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান দোলন নূরনগরে বেশি দামে সার বিক্রি করার অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা খাজরায় মূর্তি চুরির ঘটনায় মন্দির পরিদর্শন করলেন সহকারি পুলিশ সুপার জামিল আহমেদ চামড়া শিল্পের দুরবস্থা নিরসন জরুরী

কালিগঞ্জে প্রাক্তন সেনাদের দীর্ঘ দিন পেনশন ও উৎসব ভাতা বন্ধ \ ঈদ নেই পরিবারে

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • Update Time : রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১

কালিগঞ্জ (সদর) প্রতিনিধি ঃ অনলাইন কার্যক্রমের অজুহাতে দীর্ঘ ছয় মাস কালিগঞ্জ উপজেলা অধিকাংশ প্রাক্তন সেনা সদস্য ও সেনা কর্মকর্তারা ৬ মাস যাবত পেনশন ভাতা, উৎসব ভাতা টাকা না দেওয়ায় এবার তাদের পরিবারে কোন ঈদ নাই। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ছোট কোরের অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যদের অনলাইন কার্যক্রম শেষ করে জুলাই মাসের বেতন-ভাতাসহ উৎসব ভাতা পেলেও ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট চট্টগ্রাম সেনানিবাসের রেকর্ডসের আওতাধীন বহু প্রাক্তন সেনাসদস্যরা ও সেনা কর্মকর্তারা এই অনলাইনের গ্যারাকলের আওতায় দীর্ঘ ভোগান্তিতে পড়েছে। তারা অবসর প্রাপ্ত সৈনিকরা অভিযোগ করেছেন প্রতিদিন মোবাইলে ম্যাসেজ আসার অপেক্ষায় ব্যাংক চত্বরে ধরর্না দিয়ে হতাশ হয়ে ফিরে আসতে হচ্ছে। সেনা সদস্য, সেনা কর্মকর্তারা সেনাপ্রধান এবং কমান্ডেন্ট ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট সেন্টার এন্ড রেকর্ড বরাবর আবেদন করেও তেমন কোন সুফল পায়নি। সোনালী ব্যাংকে খোঁজ নিতে আসা প্রাক্তন সেনা কর্মকর্তা, ওয়ারেন্ট অফিসার রফিকুল ইসলাম, সার্জেন্ট মোক্তার, নুরুল ইসলাম, তারোক, কর্পোরাল, হাফিজুর রহমান, ল্যান্স কর্পোরালরুহুল আমিন, সাহেদসহ আরো একাধিক সেনাসদস্য সাংবাদিকদের বলেন অনলাইন কার্যক্রমের জন্য গত ফেব্র“য়ারি মাসে আমাদের পেনশনের বই জমা নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের মাধ্যমে ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট সেন্টারসহ চট্টগ্রাম সেনানিবাসে ও অন্যান্য সেনানিবাসের রেকর্ডসে পাঠানো হয়। আমাদের সামান্য পেনশন ভাতায় পরিবার চলে। আমরা কোন সরকারি ভাতা পাইনা। বর্তমান কঠোর লকডাউনের মধ্যে জীবন-যাপন করছি। গত ঈদুল ফিতর, ঈদুল আযহার বেতন ও উৎসব ভাতার না পেয়ে আমরা মানবতার জীবন যাপন করলেও কেউ খোঁজ খবর রাখে না। প্রতি মাসে ৩০০০/- টাকা পেনশন, চিকিৎসা ভাতা ১৫০০/- রেশন ভাতা জন প্রতি ৪১৮/- টাকা করে পাই। এই দ্রব্যমূল্যের বাজারে ৪১৮/- টাকায় একটি পরিবারকে কি দেওয়া যায় সে প্রশ্ন আপনাদের নিকট। তারপর দীর্ঘ ৬ মাস যাবত আমাদের সবকিছু অনলাইন কার্যক্রমের জন্য বন্ধ থাকায় কবে পাবো সেই অপেক্ষায় বসে আছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রত্যেকের মোবাইলে ঈদের শুভেচ্ছার বার্তা দিলেও আমাদের ঘরে সেই বার্তাটি এখন পরিবারের বিষোদগার হয়ে চলেছে। বিষয়টি দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং সেনাবাহিনীর প্রধানের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে প্রাক্তন সেনা সদস্যরা।

শেয়ার

আরও খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41