1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Dailik Drishtipat : Dailik Drishtipat
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৪১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কয়রায় একই পরিবারে সকলকে কুপিয়ে হত্যা মিডিয়েশন সনদ বিতরণ করলেন সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মফিজুর রহমান বাংলাদেশে বিনিয়োগকারীরা দক্ষিণ-দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার বাজারও ধরতে পারবেন -প্রধানমন্ত্রী দেবহাটা আ’লীগ মনোনয়ন প্রাপ্ত পাঁচ প্রার্থী জেলা আ’লীগ সম্পাদকের সাথে মত বিনিময় সাতক্ষীরা সদরের ইউপি নির্বাচন \ চেয়ারম্যান সহ ২৫ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার সাতক্ষীরা ভোগদখলীয় সম্পত্তি দখলের জন্য হুমকির চেষ্টার প্রদিবাদে মানববন্ধন আইসিইউ থেকে কেবিনে খালেদা জিয়া আশাশুনি উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের মতবিনিময় মা সমাবেশে সাতক্ষীরা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আমাদের দেশের কৃষি ও শিল্প এবং রপ্তানী বানিজ্য

চেয়ারম্যান লিটন গঠনতন্ত্র না মেনে নিজের ইচ্ছা মত পকেট কমিটি করেছে সংবাদ সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক ফারুকের দাবি

দৃষ্টিপাত ডেস্ক :
  • Update Time : শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ঃ আশাশুনি উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটন গঠনতন্ত্র না মেনে সম্পূর্ণ অবৈধভাবে নিজের ইচ্ছামত গঠন করা আনুলিয়া ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে গতকাল সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: ফারুকুজ্জামান। তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন নিন্ম স্বাক্ষরকারিগণ আশাশুনি আনুলিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বিভিন্ন ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হইতেছি। ২০১২ সালে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন আ’লীগের সম্মেলনে নির্বাচনের মাধ্যমে এই কমিটি গঠিত হয়। সেই থেকে আমরা সকলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগকে সুসংগঠিত করা পাশাপাশি যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করে আসছি। কিন্তু ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটন একজন স্বার্থন্বেষী, অর্থপিপাসু, দুর্নিতিবাজ, ব্যক্তি। তিনি নিজেকে ছাড়া আর কাউকে মানুষ বলে গণ্য করেন না। সব সময় দাম্ভিকতার সাথে বলে বেড়ান “আমার জনগণের ভোট লাগবে না, সরকারের প্রয়োজনে নৌকা প্রতীক দিয়ে আমাকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করবে”। ছাত্রদলের রাজনীতি থেকে অনুপ্রবেশ করে আওয়ামীলীগের রাজনীতিকে পুজি করে নিজের ও স্ত্রী’র নামে বেনামে অঢেল সম্পত্তির মালিক হয়েছেন লিটন। তার অত্যাচার নির্যাতনে এলাকার মানুষ অতিষ্টি হয়ে উঠেছে। প্রকৃত আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীদের বঞ্চিত করে আলমগীর আলম লিটন জামায়াত ও বিএনপি’র লোকদেরকে পৃষ্টপোষকতা করে চলেছেন। মোটা অংকের অর্থের বিনিময় সেনাবাহিনীতে চাকুরির জন্য জামায়াতের রোকন নয়াখালী গ্রামের জহির উদ্দীনের এক ছেলে ও নাশকতা মামলার আসামী বিএনপি ক্যাডার বিছট গ্রামের আবদুল মোড়লের দুই ছেলেকে আওয়ামী পরিবারের সন্তান বলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্যাডে সনদ দিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে দুর্ণিতির মামলা সহ একাধিক অভিযোগ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে তদন্তাধীন রয়েছে। তিনি আরো বলেন লিটন ইউনিয়ন আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক ও ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে না জানিয়ে সম্মেলন ছাড়া অগঠনতান্ত্রিকভাবে দলে অনুপ্রবেশকারি হাইব্রীডদের নিয়ে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের পকেট কমিটি গঠন করছেন। কমিটিতে তারা আপন তিন ভাই, একজন চাচা, চাচাতো ভাই, দুই ফুফাতো ভাই, আপন মামা ও মামাত ভাই রয়েছে। পক্ষান্তরে ইউনিয়ন আ’লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, সাবেক সভাপতি ও সম্পাদক, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারসহ সিনিয়র নেতা কর্মীদেরকে ওই কমিটিতে রাখা হয়নি। পরে তিনি ওই পকেট কমিটি উপজেলার সভাপতি ও সম্পাদককে ভুল বুঝিয়ে অনুমোদন করিয়েছেন। কারণ অনেক ত্যাগী নেতাকর্মী আওয়ামীলীগের মত একটি সর্ববৃহৎ ও ঐতিহ্যবাহী সংগঠন থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন। এছাড়া গঠনতন্ত্র অনুযায়ি একই ব্যক্তি উপজেলা আ’লীগের সহ সভাপতি ও ইউনিয়নের সভাপতি পদে থাকতে পারবেন না। কিন্তু আলমগীর আলম লিটন কিভাবে হলেন তা আমাদের বোদগম্য নয়। ইউনিয়ন আ’লীগকে শক্তিশালী করতে আলমগীর আলম লিটনের গঠিত ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডের পকেট কমিটি বাতিল করে গঠনতন্ত্র অনুযায়ি নতুন একই সাথে গঠনতন্ত্র না মানার দায়ে লিটনের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণে আশাশুনি উপজেলা ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক সহ সংশ্লিষ্ট সকলের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

শেয়ার

আরও খবর
© All rights reserved © 2020 dainikdristipat.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardristip41